অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

বাংলাদেশে করোনা ভাইরাসের ঝুঁকি থাকলেও এখন পর্যন্ত এই রোগে কেউ আক্রান্ত হননি


বাংলাদেশে করোনা ভাইরাসের ঝুঁকি রয়েছে। তবে এখন পর্যন্ত এই রোগে কেউ আক্রান্ত হননি। চীন থেকে এসেছেন এমন ৯০০ যাত্রীকে বিমানবন্দরে পরীক্ষা করা হয়েছে। এর মধ্যে ২ জনের লালা পরীক্ষা করে দেখা যায়, তারা জ্বরে আক্রান্ত ঠিকই, তারা সাধারণ ইনফ্লুয়েঞ্জায় আক্রান্ত। রোগ তত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের পরিচালক ডা. মীরজাদী সাবরিনা ফ্লোরা ভয়েস অব আমেরিকাকে বলেন, এ রোগ যাতে বাংলাদেশে প্রবেশ করতে না পারে সে জন্য নানামুখী পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে।

বাংলাদেশের বিমানবন্দরগুলোতে ইতিমধ্যেই সতর্কতা জারি করা হয়েছে। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক ডা. সোনিয়া তহমিনা জানান, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার সঙ্গে তারা প্রতিনিয়ত যোগাযোগ রাখছেন। তিনি জানান, চীন ছাড়া এখন পর্যন্ত ১৩ জনের শরীরে এই ভাইরাসটির উপস্থিতি পাওয়া গেছে। চীনে এ পর্যন্ত ২৫ জনের প্রাণহানি ঘটেছে। ৮৩০ জন আক্রান্ত হয়েছেন। ভাইরাসটির বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়া রোধ করতে বিশ্বজুড়ে স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষ নানা পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। বাংলাদেশেও স্বাস্থ্য কর্মীদের সতর্ক রাখা হয়েছে। কেউ আক্রান্ত হলে কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে পাঠানোর জন্য ইতিমধ্যেই নির্দেশ দেয়া হয়েছে। ডা. সোনিয়া জানান, স্বাস্থ্য অধিদপ্তর দুটি কৌশল হাতে নিয়েছে। দ্রুত আক্রান্ত ব্যক্তি শনাক্ত করা। আক্রান্ত রোগী পাওয়া গেলে তাকে কড়া নজরদারিতে রাখা। প্রয়োজনে পৃথক করে ফেলার ব্যাপারেও সিদ্ধান্ত হয়েছে। উল্লেখ্য যে, এই ভাইরাসে আক্রান্ত হলে জ্বর হয়, শ্বাসকষ্ট হয়, সেই সঙ্গে কাশিও থাকে। নিউমোনিয়া দেখা দেয়। কিডনির প্রদাহ হতে পারে। স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা সাংবাদিকদের বলেন, আক্রান্ত ব্যক্তির সংস্পর্শে এলে সাবান-পানি দিয়ে হাত ধুয়ে ফেলতে হবে এবং আক্রান্ত ব্যক্তি থেকে কমপক্ষে দুই হাত দূরে থাকতে হবে।

please wait

No media source currently available

0:00 0:01:46 0:00


XS
SM
MD
LG