অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

কেন পাকিস্তানে ক্রিকেট খেলতে যেতে রাজি হয়নি বাংলাদেশ


সম্প্রতি ঢাকায় এক আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলার সময় মাঠে বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের কয়েকজন। ফাইল ফটো- এএফপি

পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের প্রস্তাবে সায় দেয়নি বাংলাদেশ। নিরাপত্তাজনিত কারণে নিউজিল্যান্ডের পাকিস্তান সফর বাতিল হওয়ার পর বাংলাদেশকে খেলার প্রস্তাব দিয়েছিল দেশটি। পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের চেয়ারম্যান রমিজ রাজা বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডকে এই প্রস্তাব দিয়েছিলেন। মঙ্গলবার বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন সাংবাদিকদের জানান, বাংলাদেশ এই প্রস্তাবে রাজি হয়নি। কারণ বাংলাদেশ টিম তখন ছিল ছুটিতে।

তাছাড়া মহামারীর কারণে শর্ত হিসেবে কন্টিনিউয়াস বায়ো-বাবলে ছিল দলটি। এতগুলো সিরিজ খেলার পর তারা ছুটিতে রয়েছে। এখন আবার সেই বায়ো-বাবলে ঢুকতে হবে লম্বা সময়। এরপর তারা ওমান যাবে। এই অল্প সময়ের মধ্যে তাদেরকে নিয়ে অনুশীলন বা তৈরি করা কঠিন ছিল। আসলে বিশ্বকাপের আগে কোনো সুযোগই নেই।

ওমানে ১৭ই অক্টোবর থেকে শুরু হচ্ছে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। আগামী ৩ অক্টোবর ঢাকা ছাড়বে বাংলাদেশ দল। তাই স্বল্প সময়ের মধ্যে পাকিস্তান সফর সম্ভব নয় বলেই জানিয়ে দেন নাজমুল হাসান পাপন। তিনি জানান, এখন আমাদের যে পরিকল্পনা আছে ওমানে গিয়ে তিনটা অনুশীলন ম্যাচ খেলবো। সে কারণেই বলেছি, জাতীয় দল মানে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের দলে যারা আছেন তাদের পাঠানো এই মুহূর্তে সম্ভব না।

উল্লেখ্য যে, নিউজিল্যান্ডের পর ইংল্যান্ডও পাকিস্তান সফর বাতিল করে দিয়েছে। অক্টোবরে পাকিস্তান সফরের কথা ছিল ইংল্যান্ড ক্রিকেট টিমের।

ওদিকে আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি, টি-টোয়েন্টি এবং ওয়ানডে বিশ্বকাপের আয়োজক হতে আবেদন করেছে বাংলাদেশ। বৈশ্বিক এসব টুর্নামেন্ট আয়োজনে সবুজ সংকেত দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

মঙ্গলবার বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন সাংবাদিকদের বলেছেন, আমরা আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির জন্য এককভাবে আবেদন করেছি। কারণ এই ইভেন্ট করার জন্য যে ক'টা স্টেডিয়াম দরকার সেটা আমাদের আছে। আর টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের জন্য আমরা শ্রীলঙ্কার সঙ্গে যৌথভাবে আবেদন করেছি। এছাড়া ওয়ানডে বিশ্বকাপের জন্য বাংলাদেশ, শ্রীলঙ্কা ও পাকিস্তান মিলে আবেদন করেছি।

XS
SM
MD
LG