অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

সংঘর্ষের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশের ৫৫টি পৌরসভায় ভোট গ্রহণ শেষ হয়েছে 


বিক্ষিপ্ত সংঘর্ষের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশের ৫৫টি পৌরসভায় ভোট গ্রহণ শেষ হয়েছে 

বিক্ষিপ্ত সংঘর্ষ, সরকার বিরোধী রাজনৈতিক দল বিএনপির প্রার্থীদের নির্বাচন বর্জন, অগ্নিসংযোগ, বোমাবাজি এবং ব্যালট ছিনতাইয়ের মত ঘটনার মধ্য দিয়ে রোববার বিকেলে চতুর্থ ধাপে বাংলাদেশের ৫৫ টি পৌরসভায় ভোট গ্রহণ শেষ হয়েছে। 

বিক্ষিপ্ত সংঘর্ষ, সরকার বিরোধী রাজনৈতিক দল বিএনপির প্রার্থীদের নির্বাচন বর্জন, অগ্নিসংযোগ, বোমাবাজি এবং ব্যালট ছিনতাইয়ের মত ঘটনার মধ্য দিয়ে রোববার বিকেলে চতুর্থ ধাপে বাংলাদেশের ৫৫ টি পৌরসভায় ভোট গ্রহণ শেষ হয়েছে।

দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে পাওয়া খবরে জানা গেছে ভোট গ্রহণ চলা কালে প্রতিপক্ষের সঙ্গে সংঘর্ষে অন্তত একজন নিহত এবং অর্ধশতাধিক লোক আহত হয়েছেন। খবরে বলা হয়েছে চট্টগ্রাম জেলার পটিয়া পৌর নির্বাচনকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ চলাকালে ওয়ার্ড কাউন্সিলর পদপ্রার্থী আবদুল মান্নানের ভাই আবদুল মাবুদ গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহত হন। এছাড়া পটিয়ার গোবিন্দারখীল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের সামনে দুর্বৃত্তরা দোকানে আগুন ধরিয়ে দিলে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা এসে আগুন নিভিয়ে ফেলে।

খবরে বলা হয় টাঙ্গাইল জেলার কালিহাতি, রাজশাহী জেলার নওহাটা, নোয়াখালী জেলার সোনাইমুড়ি এবং অন্যান্য কয়েকটি জায়গায় ভোট চলাকালে বিক্ষিপ্ত সংঘর্ষে বেশ কয়েকজন আহত হন।

নির্বাচন চলাকালে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ প্রার্থীদের সমর্থকদের বিভিন্ন ভোট কেন্দ্রে ব্যালট ছিনতাই ও ভুয়া ভোট প্রদান এবং অন্যান্য নির্বাচনী অনিয়মের অভিযোগে বরিশালের বানারীপাড়া, চুয়াডাঙ্গার জীবননগর, চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জ, রাজশাহীর তাহেরপুর ও বাগেরহাট পৌরসভার বিএনপির মেয়র প্রার্থীরা ভোট বর্জনের ঘোষণা দিয়েছেন। লক্ষ্মীপুর জেলার রামগতি পৌরসভা নির্বাচনে এজেন্টদের কেন্দ্র থেকে বের করে দেওয়া ও ভোট কারচুপির অভিযোগ তুলে নির্বাচন বর্জনের ঘোষণা দিয়েছেন বিএনপি মনোনীত মেয়র প্রার্থী সাহেদ আলী , জাতীয় পার্টির প্রার্থী আলমগীর হোসেন ও স্বতন্ত্র প্রার্থী আবু আব্দুল্লাহ।

উল্লেখ্য, করোনা দুর্যোগের কারনে নির্বাচন কমিশন এবার দেশের মোট ৩২৯ টি পৌরসভার নির্বাচন পাঁচ ধাপে অনুষ্ঠানের সিদ্ধান্ত নেয়। আজকের নির্বাচন সহ মোট চার ধাপের নির্বাচন শেষ হয়েছে এবং পঞ্চম ধাপ বা শেষ ধাপের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে আগামী ২৮শে ফেব্রুয়ারি।

please wait

No media source currently available

0:00 0:02:00 0:00



XS
SM
MD
LG