অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

মিয়ানমার সেনাবাহিনীর নৃশংস নির্যাতনে প্রায় ৭ লাখ রোহিঙ্গা বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছেন


মিয়ানমারের গোলযোগ পূর্ণ রাখাইন রাজ্যের মুসলিম বিদ্রোহী সংগঠন আরাকান রোহিঙ্গা সালভেশন আর্মি (আরসা)দেশটির সরকারকে কড়া সতর্কবার্তা দিয়েছে।

রোববার আরসার নিজস্ব টুইট একাউন্টে সংগঠনটির নেতা আতা উল্লাহ এক বিবৃতিতে বলেছেন রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীকে বার্মার রাষ্ট্রীয় মদত পুষ্ট সন্ত্রাসের হাত থেকে রক্ষা করতে লড়াই করা ছাড়া আরসার কাছে আর কোনো বিকল্প নেই।

যেসকল ইস্যুতে রোহিঙ্গাদের মানবিক চাহিদা এবং রাজনৈতিক ভবিষ্যতের ওপর প্রভাব পড়বে সেসকল ইস্যুর বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়ার ক্ষেত্রে রোহিঙ্গাদের সঙ্গে আলাপ আলোচনা করার দাবি জানানো হয়েছে ওই বিবৃতিতে।

শুক্রবারে মিয়ানমার সেনাবাহিনীর একটি গাড়ি বহরের ওপর হামলা চালানোর দায় স্বীকার করার দুই দিন পর আরসা এই বিবৃতি দিল। শুক্রবারের ওই হামলার বিষয়ে অবশ্য বিস্তারিত কিছু জানা যায়নি।

উল্লেখ্য, গত ২৫ শে আগস্ট আরসা রাখাইন রাজ্যে সেনাবাহিনী এবং নিরাপত্তা রক্ষাকারীদের ৩০টি শিবিরে হামলা চালালে সেনা সদস্য সহ ১১ জন নিহত হন। ওই ঘটনার পর সাধারণ রোহিঙ্গাদের ওপর মিয়ানমার সেনাবাহিনীর নৃশংস নির্যাতন শুরু হলে প্রায় ৭ লাখ রোহিঙ্গা প্রাণ বাঁচাতে বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছেন।

please wait

No media source currently available

0:00 0:01:06 0:00

XS
SM
MD
LG