অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ে পাকিস্তানকে হারালো বাংলাদেশের নারী ক্রিকেট দল


ফাইল ছবিতে দেখা যাচ্ছে, শ্রীলঙ্কাতে আইসিসি মহিলা বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের ম্যাচে ভারতের বিপক্ষে বাংলাদেশের ব্যাটসম্যান ফারজানা হক ব্যাটিং করছেন। ফেব্রুযারী ১৭, ২০১৭।
ফাইল ছবিতে দেখা যাচ্ছে, শ্রীলঙ্কাতে আইসিসি মহিলা বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের ম্যাচে ভারতের বিপক্ষে বাংলাদেশের ব্যাটসম্যান ফারজানা হক ব্যাটিং করছেন। ফেব্রুযারী ১৭, ২০১৭।

ওয়ানডে বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে নিজেদের প্রথম ম্যাচে শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত লড়ে পাকিস্তানকে হারিয়ে জয় ছিনিয়ে নিল বাংলাদেশ প্রমীলা ক্রিকেট দল। ফারজানা হকের ৪৫ ও রুমানা আহমেদের দুর্দান্ত অর্ধশতকে ভর করে পাকিস্তানকে ৩ উইকেটে হারায় বাংলাদেশ।

রোববার (২১ নভেম্বর) হারারেতে টস জিতে পাকিস্তানকে ব্যাটিংয়ে পাঠায় বাংলাদেশ নারী ক্রিকেট দল। প্রথমে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ৫০ ওভার খেলে ৭ উইকেট হারিয়ে ২০১ রান সংগ্রহ করে পাকিস্তান। জবাবে ব্যাট করতে নেমে রুমানার দারুণ ইনিংসে শেষ ওভারে জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় বাংলাদেশ।

টস হেরে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা ভালো করতে পারেনি পাকিস্তান। আয়শা জাফর ৬ রানে ফেরার পর রুমানার বলে উইকেট হারিয়ে ব্যক্তিগত ২২ রানে বিদায় নেন মুনিবা আলী। ব্যাট করতে নেমে সুবিধে করতে পারেননি পাক অধিনায়ক জাভেরিয়া খান। ব্যক্তিগত ১২ রানে তার ফেরার পর উইকেট হারান ওমায়মা সোহাইল ও ইরাম জাভেদও।

ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়া পাকিস্তানের হাল ধরেন নিধা ধর ও আলিয়া রাজ। এ দুইজনের ব্যাটে ভর করে ভালো সংগ্রহ পায় পাকিস্তান। শেষদিকে এসে সালমা খাতুনের বলে উইকেট হারান নিধা ধর। ১১১ বলে ৮৭ রান করে সাঝঘরে ফেরেন তিনি। এরপর থিতু হয়ে থাকা আলিয়ার ব্যাটে নির্ধারিত ৫০ ওভার শেষে ২০১ রান সংগ্রহ করে পাকিস্তান। ৮২ বলে ৬১ রান নিয়ে অপরাজিত থাকেন আলিয়া।

জয়ের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে পঞ্চম ওভারে ৯ রান করে উইকেট হারান ওপেনার মুর্শিদা খাতুন। এরপর শারমিন আক্তার ও ফারজানা হকের ব্যাটে ঘুরে দাঁড়ায় বাংলাদেশ। ৩১ রান করে শারমিনের ফেরার পর ব্যাট করতে নেমে উইকেট হারান নিগার সুলতানা। এরপর দলের হাল ধরা ফারজানা হক শিকার হন নিধা ধরের। ৯০ বলে ৪৫ রান করে বিদায় নেন তিনি।

এরপর রুমানা আহমেদকে সঙ্গ দিয়ে দলকে জয়ের দিকে নিয়ে যান রিতু মনি। কিন্তু ফাতিমা সানার বলে বোল্ড হয়ে ব্যক্তিগত ৩৩ রানে উইকেট হারান তিনি। এরপর ডাক মেরে বিদায় নেন লতা মন্ডল ও ফাহিমা খাতুন। শেষদিকে এসে রুমানা আহমেদকে সঙ্গ দিয়ে দলের জয় নিশ্চিত করেন সালমা খাতুন। ৪৪ বলে অর্ধশতক তুলে নিয়ে অপরাজিত ছিলেন রুমানা। অপরদিকে ১৩ বলে ১৮ রান করে অপরাজিত থাকেন সালমা।

XS
SM
MD
LG