অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

যুক্তরাষ্ট্র বেলারুশে আরও নিষেধাজ্ঞা আরোপ করছে


শুক্রবার যুক্তরাষ্ট্র বেলারুশের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়ার কথা ঘোষণা করেছে, যার লক্ষ্য হচ্ছে সে দেশের ‘শক্তমানব’ প্রেসিডেন্ট আলেকজান্দার লুকাশেঙ্কো যিনি একটি ইউরোপীয় বিমানের গতি ফেরাতে বাধ্য করায় বিশ্বব্যাপী প্রতিবাদের মুখে রুশ নেতা ভ্লাদিমির পুতিনের সঙ্গে দেখা করেছেন। হোয়াইট হাউজের প্রেস সচিব জেন সাকি, “২৩শে মে‘র ঐ ঘটনার এই বিশ্বাসযোগ্য আন্তর্জাতিক তদন্তের” আহ্বান জানিয়েছেন। তিনি এই ঘটনাকে,“আন্তর্জাতিক নিয়মের উপর উদ্দেশ্যমূলক ভাবে প্রত্যক্ষ আঘাত বলে” উল্লেখ করেন।

বেলারুশ রায়ানএয়ারের গতি ফেরাতে একটি সামরিক বিমান পাঠায় এবং বিমানটি অবতরণ করলে ঐ বিমানের যাত্রী ২৬ বছর বয়সী বিরোধী ব্লগার এবং সক্রিয়বাদী রোমান প্রোতাসেভিচকে গ্রেপ্তার করে আর এ কারণেই বিশ্বব্যাপী প্রতিবাদের ঝড় ওঠে। হোয়াইট হাউজ ঘোষণা করেছে যে, লুকাশেঙ্কো সরকারের গুরুত্বপূর্ণ সদস্যদের বিরুদ্ধে কিছু নিষেধাজ্ঞা নিয়ে তারা ইউরোপীয় ইউনিয়নের সঙ্গে কাজ করছে। এরই মধ্যে বেলারুশের রাষ্ট্র-পরিচালিত অর্থনৈতিক প্রতিষ্ঠানগুলোর উপর এপ্রিল মাসে পুণঃ আরোপিত নিষেধাজ্ঞা আবার ৩রা জুন থেকে কার্যকর করা হবে। সেই সময়ে বেলারুশে গণতন্ত্রপন্থি বিক্ষোভের বিরুদ্ধে অভিযান চালানোর জন্য নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছিল। সাকি বলেন, বেলারুশের বিরুদ্ধে আরও নিষেধাজ্ঞার লক্ষ্য হতে পারে তারা, “যারা দূর্নীতিকে, মানবাধিকার লংঘনকে এবং গণতন্ত্রের উপর আঘাতকে সমর্থন করে”।

হোয়াইট হাউজ আমেরিকান নাগরিকদের বেলারুশে ভ্রমণ নিষিদ্ধ করেছে এবং আমেরিকান যাত্রীবাহী বিমানগুলোকে বেলারুশের আকাশ সীমায় উড়ে যাবার সময়ে বিশেষ সাবধানতা অবলম্বন করতে বলেছে। ইউরোপীয় ইউনিয়ন ই.ইউ ভিত্তিক যাত্রীবাহী বিমানগুলোকে বেলারুশের আকাশ সীমা পরিহার করতে বলছে।তবে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন শুক্রবার কৃষ্ণসাগরের অবকাশ যাপন কেন্দ্র সোচিতে লুকাশেঙ্কোকে স্বাগত জানিয়ে দু দেশের ঘনিষ্ঠ সম্পর্ককে তুলে ধরেন। লুকাশেঙ্কো অভিযোগ করেন যে, পশ্চিমীরা বেলারুশে গোলযোগ বাঁধানোর চেষ্টা করছে।

XS
SM
MD
LG