অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

বার্নিকাটের গাড়িতে হামলা, তদন্তে গতি নেই


b USA Marcia Bernicat

ঢাকাস্থ মার্কিন রাষ্ট্রদূত মার্শা বার্নিকাটের গাড়িতে হামলার তদন্তে গতি নেই। মামলাটি তদন্ত করছে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ। গত ৪ঠা আগস্ট রাত ১১টায় মোহাম্মদপুরে বার্নিকাটের গাড়িতে হামলা করা হয়।

সুজন সম্পাদক ড. বদিউল আলম মজুমদারের মোহাম্মদপুরস্থ বাসভবনে একটি নৈশভোজে যোগদান শেষে বার্নিকাটের গাড়িতে ৩০/৪০ জন সশস্ত্র ব্যক্তি হামলা চালায়। রাষ্ট্রদূতকে তাৎক্ষণিকভাবে সুরক্ষা দেন তার একজন নিরাপত্তা কর্মী ও ব্যক্তিগত গাড়ি চালক। একটি এসএমএস বার্তা তদন্ত কর্মকর্তাদের নজরে এসেছে। বার্তাটি অনেক কিছুর ইঙ্গিত করে। তদন্ত কর্মকর্তারা বলছেন, যাচাই-বাছাই না করে এই এসএমএস নিয়ে কোন মতামত দেয়া যাচ্ছে না। ঐ বার্তায় ঘটনার আগে একটি বৈঠকের খবর রয়েছে। এই হামলার পর ওয়াশিংটনে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূতকে তলব করে ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ জানানো হয়।

রাষ্ট্রদূতের গাড়িতে হামলা নিয়ে ঢাকায় অবস্থানরত বিদেশী কূটনীতিকদের মধ্যে ব্যাপক প্রতিক্রিয়া হয়েছে। তারা নানাভাবে সরকারকে বলার চেষ্টা করছেন এটাতে কার্যকর ও নিরপেক্ষ তদন্ত না হলে কূটনৈতিক দুনিয়ায় বাংলাদেশের ইমেজ প্রশ্নের মুখোমুখি হবে। রোববার পররাষ্ট্র সচিব শহীদুল হকের সঙ্গে যে ১০ জন পশ্চিমা কূটনীতিক সাক্ষাত করেন সেখানেও এই বিষয়টি আলোচনায় আসে। রাষ্ট্রদূতরা জানতে চান, তদন্তের কি খবর? অগ্রগতিই বা কতটুকু। পররাষ্ট্র সচিব তাদের জানিয়েছেন, ঘটনাটি অনাকাক্সিক্ষত, অপ্রত্যাশিত ও দুঃখজনক। সরকারের তরফে ইতিমধ্যেই এর নিন্দা জানানো হয়েছে। তাছাড়া তদন্তে প্রমাণিত হলে কাউকেই ছাড় দেয়া হবে না। তদন্ত কাজে নিয়োজিত উপ-কমিশনার মোখলেসুর রহমান এই সংবাদদাতাকে বলেন, আমরা তদন্ত করছি। বলার মতো কোন অগ্রগতি নেই।

এ ব্যাপারে মোহাম্মদপুর থানায় একটি মামলা হয়েছে। ডিবি কর্মকর্তা মোখলেসুর রহমান জানান, ড. বদিউল আলম মজুমদার, ইশতিয়াক আহমেদসহ অনেককেই জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। দূতাবাসের দেয়া তথ্যও তদন্তের আওতায় আনা হয়েছে। আলোচিত এসএমএসটিও রয়েছে বলে তিনি উল্লেখ করেন।

ঢাকা থেকে মতিউর রহমান চৌধুরীর প্রতিবেদন।

please wait

No media source currently available

0:00 0:00:54 0:00

XS
SM
MD
LG