অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

বাইডেন প্রশাসন: অভ্যন্তরীন ও পররাষ্ট্র বিষয়ক নিরাপত্তা অভিন্নই


যুক্তরাষ্ট্রের নতুন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের প্রশাসন দেশের নিরাপত্তার প্রতি হুমকির প্রশ্নে আগেকার আমলের মতো অভ্যন্তরীণ নীতি এবং পররাষ্ট্র নীতির মধ্যকার পার্থক্য আর রাখছে না। জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জেইক সালিভান গতকাল এক ভার্চুয়াল সভায় বলেন, “আসলে পররাষ্ট্র নীতিই হচ্ছে অভ্যন্তরীণ নীতি এবং অভ্যন্তরীণ নীতিই হচ্ছে পররাষ্ট্র নীতি”। তিনি বলেন, “আমাদেরকে এমন একটি শক্ত অবস্থানে যেতে হবে যাতে করে বিশ্বব্যাপী আমরা যে চ্যালেঞ্জের সম্মুখীন হই, তা যেন মোকাবিলা করতে পারি। এই মূহুর্তে যুক্তরাষ্ট্রের জন্যে জাতীয় নিরাপত্তা সম্পর্কে সব চেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ হচ্ছে আমদের নিজেদের ঘর ঠিক করা। সালিভান হুমকিকে কেবলমাত্র বিদেশি কিংবা শুধু অভ্যন্তরীণ হিসেবে চিহ্নিত করার বিপক্ষে এবং এতে এই কথাই স্বীকার করে নেওয়া হয় যে, নতুন প্রশাসনের সামনের অনেকগুলো বিপদই সীমানা কিংবা সীমান্ত মনে চলে না।

সালিভান আরও বলেন যে, বিশ্ব মঞ্চে সুবিধা পাওয়ার জন্য যুক্তরাষ্ট্রের শত্রুরা যে ভাবে ওয়াশিংটনের অভ্যন্তরীন রাজনীতিকে ক্রমবর্ধমান হারে ব্যবহার করছে তাতে বাইডেন প্রশাসন উদ্বিগ্ন। বাইডেন প্রশাসনের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা আরও বলেন যে, অভ্যন্তরীণ হুমকি যেমন দেশের ভেতরের সহিংস উগ্রবাদ যা বিচ্ছিন্ন ভাবে নয়, বিশ্বের ধারারই অংশ হিসেবে বিরাজ করে তার মোকাবিলার জন্য যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র নীতিকে শক্তিশালী করতে হবে। সালিভান আরও বলেন যে, জাতীয় নিরাপত্তা সম্পর্কে বাইডেন প্রশাসনের দৃষ্টিভঙ্গি হচ্ছে মিত্র রাষ্ট্রগুলোর সঙ্গে সম্পর্ক জোরালো করার উপর অগ্রাধিকার দেওয়া।

XS
SM
MD
LG