অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

হোয়াইট হাউজে আজ বাইডেন-মার্কেল বৈঠক


Rile Photo

বুধবার হোয়াইট হাউজ বলে,“এই সফর যুক্তরাষ্ট্র ও জার্মানির মধ্যে গভীর ও স্থায়ী দ্বিপাক্ষিক বন্ধনকে আরও নিশ্চিত করবে। হোয়াইট হাউজের মতে বাইডেন ও মার্কেল বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা করবেন যার মধ্যে রয়েছে “জলবায়ু পরিবর্তনের হুমকি মোকাবিলা,কভিড-১৯ মহমারির পরিসমাপ্তি, আঞ্চলিক ও নিরাপত্তা সংক্রান্ত চ্যালেঞ্জের প্রতি আলোকপাত এবং বিশ্বজুড়ে গণতন্ত্রকে তুলে ধরা”।  

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের সঙ্গে আজ বৃহস্পতিবার হোয়াইট হাউজে জার্মান চান্সালার আঙ্গেলা মার্কেল দেখা করছেন। সম্ভবত এটিই হবে যুক্তরাষ্ট্রে তাঁর শেষ সরকারি সফর। ১৬ বছর ধরে চান্সালার থাকার পর মার্কেল সেপ্টেম্বরের নির্বাচনের পর সরকার থেকে বেরিয়ে আসবেন। বুধবার হোয়াইট হাউজ বলে,“এই সফর যুক্তরাষ্ট্র ও জার্মানির মধ্যে গভীর ও স্থায়ী দ্বিপাক্ষিক বন্ধনকে আরও নিশ্চিত করবে। হোয়াইট হাউজের মতে বাইডেন ও মার্কেল বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা করবেন যার মধ্যে রয়েছে “জলবায়ু পরিবর্তনের হুমকি মোকাবিলা,কভিড-১৯ মহমারির পরিসমাপ্তি, আঞ্চলিক ও নিরাপত্তা সংক্রান্ত চ্যালেঞ্জের প্রতি আলোকপাত এবং বিশ্বজুড়ে গণতন্ত্রকে তুলে ধরা”।

আশা করা হচ্ছে এই দুই নেতা রাশিয়ার গ্যাস পাইপ লাইন নিয়েও কথা বলবেন, ওয়াশিংটন এই গ্যাস লাইনের ব্যাপারে আপত্তি জানিয়ে আসছে। নর্ড স্ট্রিম টু নামের এই প্রকল্পটি রাশিয়া থেকে জার্মানিতে প্রাকৃতিক গ্যাস নিয়ে আসে। যুক্তরাষ্ট্রের যুক্তি হচ্ছে যে রাশিয়ার গ্যাসের উপর ইউরোপের নির্ভরশিলতা বৃদ্ধি করে এবং পূর্ব ও মধ্য ইউরোপের অরক্ষিত দেশগুলোর উপর ক্রেমিলনের চাপ বৃদ্ধির সুযোগ দিয়ে এই প্রকল্প ইউরোপের জ্বালানি শক্তির নিরাপত্তাকে ঝুঁকির মুখে ফেলবে।

মার্কেলের মুখপাত্র স্টেফেন সেইবার্ট সংবাদাতাদের বলেছেন যে এই দুই নেতা চীনের ব্যাপারেও আলোচনা করবেন। চীনের সঙ্গে জার্মানির বেশ শক্ত বানিজ্যিক সম্পর্ক রয়েছে। বৃহস্পতিবার মার্কেল প্রেসিডেন্ট বাইডেন ফার্স্ট লেডি জিল বাইডেন, ভাইস প্রেসিডেন্ট কামালা হ্যারিস এবং সেকেন্ড জেন্টেলম্যান ডগলাস এমহফের সঙ্গে নৈশভোজে মিলিত হবেন। মার্কেল জন্স হপকিন্স ইউনিভার্সিটির স্কুল অফ অ্যাডভান্সড ইনটারন্যশাল স্টাডিজ থেকে সম্মানসূচক ডিগ্রি লাভের পর বক্তব্য রাখবেন।

( এই প্রতিবেদনের কিছু তথ্য রয়টার্স ও এসোসিয়েটেড প্রেস থেকে পাওয়া)

XS
SM
MD
LG