অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী: যুক্তরাষ্ট্র ও ব্রিটেন আবারও একত্রে নের্তৃত্ব দিতে পারে


ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী টেরিজা মে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে বিশেষ সম্পর্ক স্থাপন করার ব্যাপরটি উল্লেখ করতে যাচ্ছেন। ব্রিটেন যখন ইউরোপীয় ইউনিয়ন থেকে বেরিয়ে আসছে এবং ডনাল্ড ট্রাম্প যখন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট হিসেবে তাঁর মেয়াদকাল শুরু করেছেন , ঠিক সেই সময়ে যুক্তরাষ্ট্রে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর সফর অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। বস্তুত টেরিজা মে হচ্ছেন প্রথম বিদেশি সরকার প্রধান যিনি যুক্তরাষ্ট্র সফর করছেন।

তিনি আগামিকাল হোয়াইট হাউজে আসার আগে আজ ফিলেড্যালফিয়ায় যাচ্ছেন। তিনি আজ একটি অবকাশ কেন্দ্র রিপাবলিকান দলীয় কংগ্রেস সদস্যদের উদ্দেশ্য ভাষণ দেবেন । আগে থেকে প্রস্তুত বক্তব্যে , মনে করা হচ্ছে তিনি এই সম্পর্কের ইতিহাস তুলে ধরবেন যা কীনা আধূনিক বিশ্ব নির্মাণ করেছে। আজ এই অবকাশ কেন্দ্রে ট্রাম্প এবং ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স ও যোগ দেবেন।

তাঁর প্রস্তুত বক্তব্যের উদ্ধৃতি অনুযায়ী মে বলবেন , আমরা যখন আমাদের আস্থা পুনঃ আবিষ্কার করছি , আপনারাও যখন আপনাদের দেশকে নতুন করে দেখছেন, আমরাও দেখছি , আমাদের কাছে সে সুযোগ আছে , বস্তুত দায়িত্ব ও রয়েছে এই নতুন যুগে আমাদের সম্পর্ক নবায়ন করা । আবারও আমাদের নের্তৃত্ব দেওয়ার সুযোগ এসছে।

উভয় নেতাই তাদের আন্তর্জাতিক সম্পর্কে সংস্কার সাধনের উপর , বিশেষত বানিজ্যিক সম্পর্ক বিষয়ে। ই.ইউ থেকে ব্রিটেনের বেরিয়ে আসা এবং ১২ টি দেশের সমন্বয়ে গঠিত ট্রান্স প্যাসিফিক পার্টনারশীপ থেকে যুক্তরাষ্ট্রের বেরিয়ে আসার কারণে গোটা বিশ্বেই নতুন বানিজ্যিক সম্পর্কের প্রয়োজনীয়তা দেখা দিয়েছে।

XS
SM
MD
LG