অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

সিপিজে: বাংলাদেশ কর্তৃপক্ষ দুই রোহিঙ্গা সাংবাদিককে হয়রানি করছে, হুমকি দিয়েছে


Rohingya refugee

সিপিজের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বৈঠকের পর পরই বাংলাদেশ শরনার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনারের দপ্তরের একজন কর্মকর্তা মোহাম্মদ আজিজ আরকানেকে প্রেপ্তার করতে পুলিশকে বলেন বলে ঐ সাংবাদিক ফোনে সিপিজে’কে জানিয়েছে। তাঁরা সিপিজেকে আরও  জানিয়েছেন, সেই থেকে তিনি  এবং তাঁর ভাই পুলিশের আটক এড়াতে ভিন্ন জায়গায় লুকিয়ে আছেন।   

দ্য কমিটি টু প্রোটেক্ট জার্নালিস্টস( সিপিজে) বৃহস্পতিবার বলেছে, বাংলাদেশ কর্তৃপক্ষ যাতে সংবাদদাতা সাইফুল আরকানে এবং তার ভাই ও সহকর্মি ক্যামেরাম্যান মোহাম্মদ আজিজ আরাকানেকে হয়রানি করা অবিলম্বে বন্ধ করে।

সিপিজে বলছে যে ২রা আগস্ট এই দুই ভাই যারা ইউটিউব চ্যানেলে রোহিঙ্গাদের সংবাদ ওয়েবসাইট "দ্য আরাকান টাইমস"- এর জন্য খবর পাঠায় তারা রোহিঙ্গা শরনার্থী, জাতিসংঘের কর্মকর্তা এবং বাংলাদেশ শরনার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবসন কমিশনারের কর্মকর্তাদের নিয়ে কক্সবাজারের নোয়াপাড়া ত্রাণ শিবিরে এক বৈঠকে অংশ নেয়। সিপিজে পর্যালোচিত ঐ বৈঠকের ভিডিও এবং মোহাম্মদ আজিজ আরাকানের ভাষ্য অনুযায়ী খাদ্যের রেশন কার্ড সম্পর্কে প্রতিবাদের পর ঐ বৈঠকে রেশন কার্ডে পরিবর্তন আনার বিষয়ে আলোচনা করা হয়।

সিপিজের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বৈঠকের পর পরই বাংলাদেশ শরনার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনারের দপ্তরের একজন কর্মকর্তা মোহাম্মদ আজিজ আরকানেকে প্রেপ্তার করতে পুলিশকে বলেন বলে ঐ সাংবাদিক ফোনে সিপিজে’কে জানিয়েছে। তাঁরা সিপিজেকে আরও জানিয়েছেন, সেই থেকে তিনি এবং তাঁর ভাই পুলিশের আটক এড়াতে ভিন্ন জায়গায় লুকিয়ে আছেন।

এ দিকে এই ঘটনা সম্পর্কে জানেন এমন এক ব্যক্তি, নাম প্রকাশ না করার শর্তে সিপিজেকে জানিয়েছে যে, পুলিশ এই দুই ভাইয়ের বাবা-মার কাছে এক লক্ষ টাকা ঘুষ চায় যার বিনিময়ে তাদের বিরুদ্ধে কোন ফৌজদারি মামলা করা হবে না।

সিপিজে বলছে বাংলাদেশ শরনার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবসন কমিশনার শাহ রেজওয়ান হায়াত, সিপিজে’র ফোন কিংবা টেকস্ট মেসেজের কোন জবাব দেননি , কোন মন্তব্যও করেননি।

সিপিজেকে মেসেজিং অ্যাপে কক্সবাজারের সশস্ত্র পুলিশ ব্যাটেলিয়ানের কমান্ডার তারিকুল ইসলাম তারিক বলেছেন যে নয়াপাড়া শরনার্থী শিবিরে তাঁর টিম সাইফুল আরাকানে এবং মোহম্মদ আজিজ আরাকানে সম্পর্কে জানে না তবে তিনি পুলিশের ঘুষ চাওয়ার অভিযোগ তদন্ত করে দেখছেন।

XS
SM
MD
LG