অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

ইইউ নেতারা বলছেন, বৃটেনকে একদিন আপসোস করতে হবে


APTOPIX Britain Brexit

ইউরোপীয় নেতারা বৃটেনের বিচ্ছেদ মেনে নিতে পারছেন না। তাই তারা নানামুখি প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করছেন। বৃটেন বলছে, তারা ফিরে পেয়েছে সার্বভৌমত্ব। আর ইউরোপীয় নেতারা বলছেন বৃটেনকে একদিন আফসোস করতে হবে।
ফরাসি প্রেসিডেন্ট ফ্রাঁসোয়া ওঁলাদ বলেছেন, বৃটিশদের কাছে ব্রেক্সিট হবে খুবই বেদনাদায়ক। এরপরও ইউরোপ সামনে এগিয়ে যাওয়ার গতি পাবে। নিঃসন্দেহে সেই গতি হবে ভিন্ন।
জার্মান চ্যান্সেলর অ্যাঙ্গেলা মারকেল বলেছেন, জার্মান ও তার অংশীদাররা অবশ্যই এমন দিন প্রত্যাশা করেনি। তা সত্ত্বেও ইউরোপীয় ইউনিয়ন ব্রেক্সিট নিয়ে আলোচনায় সুষ্ঠু ও গঠনমূলক পদক্ষেপ নেবে।
ইউরোপীয় কাউন্সিল প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাস্ক বলেছেন, ব্রাসেলস বা লন্ডন কারো পক্ষে ব্রেক্সিট শুরুর দিনটি সুখকর এটা ভাবার কোনো কারণ নেই।
ইউরোপীয়ান কমিশনের প্রেসিডেন্ট জ্যঁ ক্লদ জাঙ্কার বলেছেন, ব্রেক্সিট শুরুর দিনটি বেদনার। তারা এমন এক সিদ্ধান্ত নিয়েছে যার জন্য একদিন অনুশোচনা করতে হবে।
আয়ারল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী এন্ডা কেনি বলেছেন, ব্রেক্সিট নিয়ে গণভোটের প্রচারণায় মিথ্যা তথ্য প্রচার করা হয়েছে।
ডাচ ফ্রিডম পার্টির এমপি গির্ট উইল্ডার্স বলেন, এটা একটি ঐতিহাসিক মুহূর্ত। বৃটেনকে অভিনন্দন তাদের জাতীয় সার্বভৌমত্ব ফিরে পাওয়ায়।
পর্তুগালের অর্থমন্ত্রী মারিও সেন্টেনো বলেছেন, এটা একটা ঐতিহাসিক দিন। এর মধ্য দিয়ে ইউরোপ এমন এক পথে যাত্রা করবে যে পথ সবার অজানা।
এস্তোনিয়ার প্রধানমন্ত্রী জুরি রাতাস বলেছেন, সমঝোতা প্রক্রিয়া হবে অত্যন্ত কঠিন।
লন্ডন থেকে মতিউর রহমান চৌধুরীর রিপোর্ট।

please wait

No media source currently available

0:00 0:01:21 0:00

XS
SM
MD
LG