অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

২৩তম দিনেও কোনও সমাধানের দিকে যেতে পারেনি ভারতের কৃষক আন্দোলন


গোটা ভারত জুড়ে কৃষক বিক্ষোভের আগুন জ্বলছে। ২৩তম দিনেও কোনও সমাধানের দিকে যেতে পারেনি এই আন্দোলন। বারবার বৈঠক হয়েছে, কিন্তু তা ব্যর্থই হয়েছে। আজ, শুক্রবার 'কিষাণ কল্যাণ' শীর্ষক এক অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত হয়ে দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে দেশের বিক্ষুব্ধ কৃষকদের প্রতি বার্তা দিলেন।সেই বার্তায় নরেন্দ্র মোদী বললেন, এই আইনে কোনও ভাবেই ক্ষতিগ্রস্ত হবেন না কৃষকেরা। কেননা, তাঁর সরকার কৃষকদের 'অন্নদাতা' বলে মনে করে। তিনি জানান, পূর্বতন সরকার কৃষকদের এমএসপি বাড়ায়নি। তাঁর সরকারই একমাত্র ফসলের উপর দেড়গুণ এমএসপি দেয়। অতীতে সকলেই কৃষকদের ব্যবহার করেছে কিন্তু তাঁদের উন্নতিবিধান করেনি। যে কাজটা ৩০ বছর আগেই হওয়া উচিত ছিল সেটা এখন হচ্ছে। বহু চিন্তাভাবনা করেই এই আইন প্রণয়ন করা হয়েছে। এ নিয়ে কৃষকদের আতঙ্কিত হওয়ার কোনও প্রশ্নই নেই, কেননা, এর মাধ্যমে কৃষকেরা সমস্ত আধুনিক প্রযুক্তির সুবিধা পাবেন। তাঁদের এমএসপি বা জমি নিয়ে কোনও দুর্ভাবনায় ভুগতে হবে না। তাঁর সরকার ৩৫ লক্ষ কৃষককে টাকা দিয়েছে। স্বামীনাথন কমিটির রিপোর্ট ৮ বছর ধরে ধামাচাপা পড়েছিল। সেটা বের করে আনা হয়েছে। কৃষকদের উন্নতির স্বার্থেই। দেশের রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের অভিমত এ দিন সামগ্রিক ভাবে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী নতুন কৃষি আইনেই অনড় থাকার বার্তা এবং দেশে আন্দোলনরত কৃষকদের দাবিদাওয়ার পক্ষে স্বস্তিজনক তেমন কিছু বললেন না।

please wait

No media source currently available

0:00 0:01:29 0:00


XS
SM
MD
LG