অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

পশ্চিমবঙ্গে চতুর্থ দফায় ভোটের সময় উত্তরবঙ্গে কেন্দ্রীয় বাহিনীর গুলিতে ৪ জনের মৃত্যু


পশ্চিমবঙ্গে আজ শনিবার চতুর্থ দফায় ভোটের সময় উত্তরবঙ্গে একটি ভোটকেন্দ্রের সামনে কেন্দ্রীয় বাহিনীর গুলিতে ৪ জনের মৃত্যু হয়। আর একটি জায়গায় ভোট চলাকালে দুই পক্ষের সংঘর্ষের মধ্যে পড়ে মৃত্যু হয়েছে এক তরুণের। সকালে প্রথম ঘটনাটি ঘটে কোচবিহারে। সেখানে বিজেপি ও তৃণমূলের সমর্থকদের মধ্যে হঠাৎ সংঘর্ষ বাধে এবং তার মাঝখানে পড়ে গুলিতে মৃত্যু হয় আনন্দ নামে এক তরুণের। এ বছরেই প্রথম ভোটদানের অধিকারী হয়েছিলেন তিনি। অন্যদিকে কোচবিহার জেলারই মাথাভাঙ্গায় শীতলকুচি গ্রামে একটি ভোটকেন্দ্রের সামনে হঠাৎই একজন ভোটদাতা অসুস্থ হয়ে পড়লে খবর রটে যায় যে তাঁকে কেন্দ্রীয় বাহিনী মারধর করেছে। গ্রামবাসীরা কেন্দ্রীয় বাহিনীর দিকে তেড়ে যান।

সরাসরি লিংক

কেন্দ্রীয় বাহিনীর তরফে জানানো হয়েছে, আকাশে কয়েক রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছোড়ার পর কাজ না হওয়ায় প্রাণ রক্ষার্থে তারা গুলি চালায়। রাজ্য পুলিশের একজন উচ্চ পদস্থ অফিসারও বলেছেন, গ্রামবাসীদের হাত থেকে বাঁচতেই গুলি চালানো হয়েছে। উত্তরবঙ্গ সফররত মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এই গুলিচালনার জন্য কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে দায়ী করেছেন। আর পশ্চিমবঙ্গে প্রচারে এসে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এর জন্য দায়ী করেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে। নির্বাচন কমিশন আপাতত ওই ভোটকেন্দ্রে ভোট স্থগিত ঘোষণা করেছে এবং ঘটনার বিস্তারিত রিপোর্ট চেয়ে পাঠিয়েছে।তবে রাজ্যের অন্যত্র ইতস্তত বিক্ষিপ্ত গোলমালের খবর পাওয়া গেলেও কলকাতায় ভোট মোটামুটি শান্তিতেই হয়েছে।

XS
SM
MD
LG