অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

রাজাকারের তালিকা স্থগিত প্রধানমন্ত্রীর দুঃখ প্রকাশ




তুমুল বিতর্কের মধ্যে রাজাকারের তালিকা স্থগিত করেছে সরকার। যাচাই বাছাই করে আগামী ২৬শে মার্চ চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশ করা হবে বলে জানিয়েছেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক। তালিকা নিয়ে বিতর্ক জারি থাকার প্রেক্ষাপটে বুধবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মন্ত্রীকে এ বিষয়ে নির্দেশনা দেন। তালিকাটি যাচাই বাছাই করতে বলেন প্রধানমন্ত্রী। পরে মন্ত্রণালয় তালিকাটি স্থগিতের সিদ্ধান্ত নেয়। বিকালে মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইট থেকে তালিকাটি সরিয়ে নেয়া হয়। সন্ধ্যায় আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির এক বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রাজাকারের তালিকায় মুক্তিযোদ্ধাদের নাম আসায় দুঃখ প্রকাশ করেন। বলেন, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের উচিত হয়নি এভাবে তালিকা দিয়ে দেয়া। মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ও গোলমাল করেছে। মহান বিজয় দিবসের আগের দিন ১৫ই ডিসেম্বর সংবাদ সম্মেলন করে রাজাকারের ১০৭৮৯ জনের নাম প্রকাশ করেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক। এ তালিকায় মুক্তিযোদ্ধা, শহীদ পরিবারের সদস্য, মুক্তিযুদ্ধে শহীদের স্ত্রী, আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের প্রধান প্রসিকিউটর, মুক্তিযুদ্ধের সংগঠকসহ অনেকের নাম আসে, যারা স্বাধীনতা আন্দোলনে বিভিন্ন পর্যায়ে ভূমিকা রাখেন।

অন্যদিকে তালিকায় একাত্তরের মানবতা বিরোধী অপরাধের দায়ে দ-িত মতিউর রহমান নিজামী, আব্দুল কাদের মোল্লা, মীর কাশেম আলী, আলী আহসান মোহাম্মদ মুজাহিদ, দেলোয়ার হোসেইন সাঈদীর নাম স্থান পায়নি।
এ তালিকা প্রকাশের পর চারপাশ থেকে নানা প্রতিক্রিয়া শুরু হয়। ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেন মুক্তিযোদ্ধা ও মুক্তিযুদ্ধের সংগঠকরা। এমন অবস্থায় তালিকার ভবিষ্যৎ নিয়েও প্রশ্ন দেখা দেয়। তোপের মুখে মন্ত্রণালয় বিজ্ঞপ্তি দিয়ে জানায়, আবেদন করলে রাজাকারের তালিকায় আসা মুক্তিযোদ্ধাদের নাম বাতিল করা হবে। তালিকায় মুক্তিযোদ্ধাদের নাম আসায় দুঃখ প্রকাশ করেন মন্ত্রী মোজাম্মেল হক।

please wait

No media source currently available

0:00 0:00:56 0:00



XS
SM
MD
LG