অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

ভারতে করোনায় আক্রান্ত ৬৪১২ জন


ভারতে করোনা-আক্রান্তের সংখ্যা ফের বাড়ল। গত ২৪ ঘণ্টায় এক ধাক্কায় এই ভাইরাসে আক্রান্ত সংখ্যাও বেড়েছে অনেকটাই। এই সময়ে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৬৭৮ জন। সব মিলিয়ে আজ শুক্রবার সকাল পর্যন্ত দেশ জুড়ে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৬৪১২ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় সারা দেশে মৃত্যু হয়েছে আরো ৩৩ জনের। করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে প্রথম মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে অসমে। ইতোমধ্যেই টুইট করে এ কথা জানিয়েছেন ঐ রাজ্যের স্বাস্থ্যমন্ত্রী হিমন্তবিশ্ব শর্মা। অসমের হাইলাকান্দি জেলার ৬৫ বছরের এক বৃদ্ধ করোনায় আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন ছিলেন। পরে শিলচর হাসপাতালে তাঁর মৃত্যু হয়।
কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের দেওয়া পরিসংখ্যান অনুযায়ী, অসমে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ২৯। তবে মহারাষ্ট্র, তামিলনাড়ু বা দিল্লির মতো রাজ্য গুলিতে করোনা-আক্রান্তের সংখ্যাটা মোটেই স্বস্তিদায়ক নেই। করোনা-আক্রান্তের নিরিখে দেশের মধ্যে সবচেয়ে আশঙ্কাজনক অবস্থায় রয়েছে মহারাষ্ট্র। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রক জানিয়েছে, মহারাষ্ট্রে এই ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ১৫৮৬। ইতোমধ্যেই সে রাজ্যে মৃত্যু হয়েছে ৯৭ জনের। দিল্লিতে ৭৫৭ জন আক্রান্ত হয়েছেন। রাজধানীতে মৃতের সংখ্যা ছুঁয়েছে ১২ জন। তামিলনাড়ুতে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৮৬৩ জন। মৃত্যু হয়েছে ৮ জনের।
অন্যদিকে, পশ্চিমবঙ্গের ৬টি জেলাসহ দেশের কমপক্ষে ৩৬টি জেলায় গোষ্ঠী সংক্রমণের আশঙ্কা। ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অফ মেডিকেল রিসার্চ আইসিএমআর-এর গবেষকদের আশঙ্কা, দেশের অন্তত ৩৬টি জেলায় এধরনের গোষ্ঠী সংক্রমণ হয়েছে। সংশ্লিষ্ট সূত্রের খবর, দেশজুড়ে ICMR যে সমীক্ষা চালিয়েছে, তাতে উঠে এসেছে এমন তথ্য। দেশে ৪০ জন করোনা আক্রান্তের হদিশ মিলেছে, যাঁদের করোনা আক্রান্তের সংস্পর্শে আসার অথবা বিদেশ ভ্রমণের কোন রেকর্ড নেই। সমীক্ষায় জানা যাচ্ছে, এক্ষেত্রে আক্রান্তরা সকলেই সিভিয়ার অ্যাকিউট রেসপিরেটরি ইলনেস, সংক্ষেপে SARI পজিটিভ। ICMR-এর তথ্য অনুযায়ী পশ্চিমবঙ্গের ৬টি, মহারাষ্ট্রের ৮টি, দিল্লি ও তামিলনাড়ুর ৫টি এবং গুজরাতের ৪টি জেলায় করোনা আক্রান্তদের সন্ধান মিলেছে, যাঁরা SARI পজিটিভ।
XS
SM
MD
LG