অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

ভারতের করোনা পরিস্থিতি: আক্রান্ত ৪০৬৭, মৃত ১০৯ জন


ভারতে করোনায় মৃত্যুর সংখ্যা এক লাফে একশো ছাড়িয়ে গেল। ইতোমধ্যেই মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১০৯ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে মৃত্যু হয়েছে ৩২ জনের। অন্যদিকে, করোনা আক্রান্তের সংখ্যাও এক লাফে ৪ হাজার ছাড়িয়ে গিয়েছে। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের রিপোর্ট অনুযায়ী, এখনো পর্যন্ত মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৪০৬৭ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৬৯৩ জন। যা এক দিনে সর্বোচ্চ। আক্রান্তের সংখ্যার নিরিখে রাজ্যগুলির মধ্যে শীর্ষে রয়েছে মহারাষ্ট্র। সেখানে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৬৯০ জন। গত ১৫ ঘণ্টায় সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত হয়েছে এই রাজ্যে। নতুন আক্রান্তের সংখ্যা ২০০ জন।
এদিকে, দক্ষিণ ভারতের ভেলোরে চিকিৎসা করাতে গিয়ে এই মুহূর্তে সেখানে আটকে প্রায় ১২,০০০ মানুষ। তাঁদের মধ্যে সিংহভাগ বাঙালি, সংখ্যাটা ১০,০০০-এর বেশি তো বটেই, ১১,০০০-ও হতে পারে। এই পরিস্থিতিতে ঘরে ফেরার পথ খুঁজছেন তাঁরা।
এই মুহূর্তে একটা দিক থেকে নিশ্চিন্ত ভেলোরের এই বাঙালি পরিবারগুলি। জেলা শাসক থিরু এ সম্মুগা সুন্দরমের অফিস থেকে তাঁদের তিনবেলা খাবার দেওয়া হচ্ছে। জেলা শাসক নিজে ফোনে যোগাযোগ রাখছেন। ফোন করেছেন পশ্চিমবঙ্গ সরকারের মন্ত্রী রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়ও, তাঁর পরামর্শ, লকডাউন খুললে যেভাবে পারুন, বেরিয়ে আসুন। ভেলোর থেকে ফেরার জন্য বিশেষ ট্রেনের ব্যাপারে অনুরোধ করা হলে বিষয়টি দেখবেন বলে আশ্বাস দিয়েছেন তিনি। সমস্যা হল, এই যে ১০,০০০-এর বেশি পরিবার ভেলোরে আটকে পড়েছে, তাদের ফেরার কোন বন্দোবস্ত এখনো করা যায়নি। ১৫ তারিখ লকডাউন ওঠার কথা কিন্তু কাটপাডি হয়ে এ রাজ্যে আসা ট্রেনের টিকিট একটিও নেই, শেষ ওয়েটিং লিস্টও। বাজারে অসমর্থিত খবর, ৫ দিনের জন্য লকডাউন খোলা হতে পারে। এত বিশাল সংখ্যক মানুষকে সেই ৫ দিনের মধ্যে বাড়ি ফেরাতে হলে প্রতিদিন অন্তত ২টি করে বিশেষ ট্রেন চাই।
XS
SM
MD
LG