অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

পশ্চিমবঙ্গের নাম পরিবর্তন নির্ভর করছে মমতা-মোদির ব্যক্তিগত বোঝাপড়ার ওপর


১৯৯৯ সালে পশ্চিমবঙ্গের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী জ্যোতি বসু প্রথম রাজ্যের নামবদলের উদ্যোগ নিয়েও ব্যর্থ হন কেন্দ্রে বাজপেয়ি সরকারের সমর্থন না পেয়ে। ২০১১ সালে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় একই প্রচেষ্টায় সমর্থন পান নি মনমোহন সিং সরকারের। গত ১৭ বছরে এই তৃতীয় প্রচেষ্টা সফল হবে কিনা, তা নির্ভর করবে মমতার সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ব্যক্তিগত বোঝাপড়ার ওপর।

তবে রাজ্যের নামবদল মানেই সংসদে দুই-তৃতীয়াংশ সদস্যের সমর্থনে সংবিধান সংশোধন। কাজটা মোটেই সহজ নয়।

তিনবারই নামবদলের সরকারি উদ্যোগের পেছনে মূল কারণ একটাই- দিল্লিতে আন্তঃরাজ্য বৈঠকে রাজ্যের প্রতিনিধিদের ডাক পড়ে ৩০ নম্বরে, যখন বৈঠক শেষের মুখে। এ বার ইংরেজিতে নাম যদি `বেঙ্গল` হয়, রাজ্যের ডাক পড়বে অনধ্র, অরুণাচল আর অসমের পরেই, চার নম্বরে।

অবশ্য এ প্রশ্নও উঠছে, বর্ণানুক্রমিক তালিকায় তো নিচের দিকে রয়েছে পাঞ্জাব, উত্তরাখণ্ড বা উত্তরপ্রদেশ। তাদের কি উন্নয়ন কিছু কম হয়েছে? কেন্দ্র তাদের দাবি কম মেনেছে? কলকাতা থেকে গৌতম গুপ্ত।

please wait

No media source currently available

0:00 0:00:49 0:00

XS
SM
MD
LG