অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

জুলাই মাস থেকে ভারতে সব স্কুল খোলা যাবে


ভারতে জুলাই মাস থেকে সব স্কুল খোলা যাবে বলে কেন্দ্রীয় সরকার জানিয়েছে। আজ মঙ্গলবার সকালে কেন্দ্রীয় মানব সম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রকের একটি ঘোষণায় বলা হয়, জুন মাসটা পুরোপুরি লকডাউনের ভেতরে থেকে জুলাই মাস থেকে দেশে স্কুলগুলো খোলা যেতে পারে। তবে এই সঙ্গে একটি পূর্ণ নির্দেশিকা মানবসম্পদ উন্নয়ন থেকে পাঠানো হয়েছে। তাতে বলা হয়েছে, স্কুল খুললেও সপ্তম শ্রেণি পর্যন্ত ছাত্রছাত্রীরা স্কুলে যেতে পারবে না, তাদের বাড়িতে থেকেই পড়াশোনা করতে হবে অনলাইনে বা অন্য কোনও ভাবে। কিন্তু অষ্টম শ্রেণী থেকে দ্বাদশ শ্রেণীর ছাত্রছাত্রীরা স্কুলে গিয়ে পড়বে। সেক্ষেত্রেও ন্যূনতম স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে এবং শিক্ষক-শিক্ষিকাদের কড়া নজরে ছাত্রছাত্রীদের থাকতে হবে, যাতে তারা পুরো স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলছে কিনা সেটা দেখা হয়। শিক্ষক-শিক্ষিকাদের গ্লাভস এবং মাস্ক অবশ্যই পড়তে হবে, ছাত্র-ছাত্রীদেরও তাই।

একটি ক্লাসে যতজন করে ছাত্র-ছাত্রীরা বসে, তার ৩০% মাত্র ক্লাসে আসতে পারবে। তার মানে ঘুরিয়ে-ফিরিয়ে ক্লাস করা হবে। আজ যদি কিছু ছাত্রকে নেওয়া হয়, পরদিন তার পরের একটি গোষ্ঠী, তার পরের দিন আর একটি গোষ্ঠী, এইভাবে ঘুরিয়ে-ফিরিয়ে ক্লাস হবে। বলা হয়েছে, অল্প বয়সী ছাত্রছাত্রীরা স্বাস্থ্যবিধি ঠিকমতো মেনে চলতে পারবে না এবং হয়তো বুঝতেও পারবে না তার গুরুত্ব, সে জন্যই বাবা-মার দায়িত্বে তাদের বাড়িতেই পড়াশোনা করতে হবে। কিন্তু তার পরের পর্যায়ের পড়ুয়াদের যে হেতু এতদিন স্কুল বন্ধ ছিল, পড়াশোনার অনেক ক্ষতি হয়েছে, তাই তাদের জন্য স্কুল খোলা হবে। তবে জুন মাসটা পুরোপুরি স্কুল বন্ধ থাকবে। স্কুলগুলোতে বার্ষিক পরীক্ষার ব্যবস্থা এখনই করা যাচ্ছে না। তাই এক ক্লাস থেকে আর এক ক্লাসে ওঠার জন্য তাদের ক্লাস-পরীক্ষা বা বিগত পরীক্ষার ফল অনুসারে পাশ করিয়ে দেওয়া হবে। তবে শিক্ষাবিদরা খুবই শংকিত যে এতদিন ধরে স্কুল বন্ধ থাকায় ছাত্র-ছাত্রীদের পড়াশোনার ক্ষতি হবে এবং কম্পিটিটিভ বা প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষাগুলোতে তারা হয়তো পিছিয়ে পড়বে। সুতরাং বাড়িতে আরও বেশি করে পড়াশোনা করার ওপর জোর দেওয়া হয়েছে।

কলকাতা সংবাদদাতা দীপংকর চক্রবর্তীর রিপোর্ট।

please wait

No media source currently available

0:00 0:02:06 0:00
সরাসরি লিংক


XS
SM
MD
LG