অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

এই বছরের শেষ নাগাদ করোনা প্রতিষেধক বাজারে আনতে পারবে সিরাম ইনস্টিটিউট অফ ইন্ডিয়া


ভারতের সবচেয়ে বড় প্রতিষেধক নির্মাতা প্রতিষ্ঠানগুলোর একটি সিরাম ইনস্টিটিউট অফ ইন্ডিয়া আজ জানিয়েছে, এই বছরের শেষ নাগাদ তারা অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গে যৌথ উদ্যোগে তৈরি করোনা প্রতিষেধক বাজারে আনতে পারবে। সেরাম ইনস্টিউট অফ ইন্ডিয়া আর একটি বড় ওষুধ নির্মাতা প্রতিষ্ঠান অ্যাস্ট্রা জেনেকার সঙ্গে হাত মিলিয়ে অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকদের সঙ্গে যৌথ সহযোগিতায় যে করোনা টিকা তৈরি করেছে, সেটিই এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি আশাব্যঞ্জক প্রতিষেধক হয়ে দাঁড়িয়েছে। এতটাই যে গতকাল অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এই টিকা তৈরির কথা ঘোষণা করা মাত্র ভারতে শেয়ারবাজার একলাফে ৫শো পয়েন্ট উঠে গিয়েছে। ইতিমধ্যে সারা পৃথিবীতে প্রায় প্রতিটি দেশই করোনার প্রতিষেধক তৈরির কাজে নেমে পড়েছে এবং অনেক দেশই দাবি করছে যে তাদের গবেষণায় অনেকটা অগ্রগতি হয়েছে। ভারতের সাতটি ওষুধ তৈরির কোম্পানি একযোগে করোনা প্রতিষেধক তৈরির কাজে রীতিমতো যুদ্ধকালীন প্রস্তুতি নিয়ে এগিয়ে চলেছে। কয়েকটি তো মানুষের শরীরে পরীক্ষাও শুরু করে দিয়েছে। তবে তার মধ্যেও গতকাল অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষণালব্ধ প্রতিষেধকটি সবচেয়ে বেশি আশা জাগিয়েছে। কিন্তু একটি প্রতিষেধক কি এত তাড়াতাড়ি তৈরি করা সম্ভব? সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে সিরাম ইনস্টিউট অফ ইন্ডিয়ার সিইও আধার পুনাওয়ালা আজ মঙ্গলবার জানিয়েছেন, আগে যা সম্ভব ছিল না, এখন প্রযুক্তির অগ্রগতির ফলে তাকে সম্ভব করে তোলা গিয়েছে। তবে ওঁরা খুব সাবধানে সতর্কতার সঙ্গে এগোচ্ছেন ।

পুনাওয়ালা জানালেন, শতকরা একশো ভাগ নিশ্চিত না হয়ে এই প্রতিষেধক বাজারে আনার প্রশ্নই ওঠে না। তবে মানুষের স্বার্থেই যত দ্রুত পারা যায় টিকা তৈরি করে ফেলতে হবে।প্রাথমিক সব কাজ ঠিকমতো হয়ে গিয়েছে, সরকারি সমর্থনও পাওয়া গিয়েছে। সুতরাং সেপ্টেম্বর পর্যন্ত অপেক্ষা করার আর দরকার হবে না। অগাস্ট মাসেই তারা মানুষের শরীরে এই টিকা ব্যবহারের পরীক্ষা শুরু করে দিতে চাইছে‌। সবকিছু ঠিকঠাক চললে এই বছরেই শেষের দিকে বাজারে এই টিকা চলে আসবে। প্রথমদিকে তারা এক বিলিয়ন অর্থাৎ একশো কোটি টিকা সারা পৃথিবীর নানান দেশে সরবরাহ করবে। তার মধ্যে অগ্রাধিকার পাবে অবশ্যই ভারত আর অর্থনৈতিক দিক থেকে কিছুটা পিছিয়ে পড়া দেশগুলি। প্রতিষেধকের দাম যথাসাধ্য কম রাখা হবে যাতে তা সবার নাগালের মধ্যে থাকে।

সরাসরি লিংক


XS
SM
MD
LG