অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

কেনিয়ার প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের জন্য চলছে ভোট গ্রহন


কেনিয়ায় ভোটার সাধারণ আজ মঙ্গলবার সেই কাকভোর থেকেই লাইন বেঁধে দাঁড়িয়ে যায় দেশব্যাপী ধুন্দুমার প্রতিদ্বন্দিতায় তেতে ওঠা নির্বাচনে ভোট দেবার লক্ষ্যে। নাইরোবির কাঙ্গেমি বস্তির ৩১ বছর বয়সী মিলড্রেইড মালুবী ভোটার লাইনে দাঁড়িয়ে থেকেছেন ঝাড়া সাড়ে তিন ঘন্টা। তাঁর কথা হলো- "আমি তো সেই কবে থেকেই পরিবর্তনের জন্যে হা পিত্তেশ করে বসে রয়েছি। আর এখন আমিই যদি উঠে না দাঁড়াই ,জেগে না উঠি- তো সে পরিবর্তন আসবে কেমনে, যে মোড়বদলের জন্যে সারা দেশের মানুষ প্রতিক্ষা করে রয়েছে।"

পূর্ব আফ্রিকার দেশটিতে দু’কোটি ভোটদাতার সামনে ভোট কেন্দ্রগুলোর দরোজা খুলে যায় আজ মঙ্গলবার সেই ভোরবেলাতেই। প্রতিদ্বন্দীতা হচ্ছে কিনিয়াট্রা আর তাঁর দীর্ঘদিনের প্রতিদ্বন্দী প্রার্থী বিরোধী দলের রাইলা ওদিঙ্গার মধ্যে। গোটা আফ্রিকা মহাদেশেই এমন জোর প্রতিদ্বন্দতিপুর্ণ ভোট-লড়াই বড়ো একটা দেখা যায়নি কখনোই।

কেনিয়ার নির্বাচন কমিশন এ ভোটে একযোগে সর্বাধুনিক পদ্ধতির বায়োমেট্রিক ভোটার সনাক্তিকরণ পত্র এবং বৈদ্যুতিক ভোট ট্রান্সমিশন তরিকা ব্যবহার করছেন। দু’হাজার তেরোর ভোটপর্বে ভোটদান প্রযুক্তি সঠিক কাজ করেনি-তা নিয়ে বিস্তর বাদানুবাদ হয়েছে। ভোট জালিয়াতির অভিযোগ উঠেছে এন্তার এবং ঐ প্রেক্ষাপটে এবারের এ নির্বাচন কেনিয়ার নির্বাচন কমিশনের জন্যে অগ্নিপরিক্ষাবৎ একটা চ্যালেঞ্জ বলাই বাহুল্য।

কেনিয়ার গদ্দীনশিন প্রেসিডেন্ট উহুরূ কিনিয়াট্রা শান্তিপূর্ণভাবে ভোট দিয়ে কেনিয়ার প্রতিষ্ঠাজনকদের শির গর্বোন্নত রাখতে সাহায্য করার জন্যে কেনিয়াবাসিদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

পৈত্রিক সূত্রে কেনিয়ার সন্তান যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা বলেছেন, "কেনিয়ার জনগণের বন্ধু আমি, আমি বলি কি- আপনারা এমন একটা ভবিষ্যত পানে এগিয়ে চলুন, যার বুনিয়াদ বিভক্তির ওপর চড়ে বসবে না। যার ভিত্তি রচিত হবে ঐক্য আর আশার ব্যঞ্জনায়।

রাজনৈতিক প্রবন্ধ রচয়িতা ও ভাষ্যকার বারাক মুলুকা বলেছেন, "কেনিয়ার নাগরিক ও ভোটারদের মন মানসিকতায় এ নির্বাচন সম্মিলিত জাতীয় বিবেক রুপে প্রতিভাত হচ্ছে। মোদ্দা কথা হলো এ নির্বাচন কেবলই প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের চেয়েও বেশি কিছু।"

XS
SM
MD
LG