অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেয়ে বাড়ি ফিরে গেলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়


আজ শুক্রবার সন্ধ্যায় হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেয়ে বাড়ি ফিরে গেলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সন্ধ্যা ৭টায় হুইলচেয়ারে করে হাসপাতাল থেকে বেরিয়ে আসেন তিনি। সমবেত জনতার উদ্দেশে হাত জোড় করে নমস্কার জানিয়ে চিকিৎসাকর্মীদের সহায়তায় গাড়ির সামনের সিটে উঠে বসেন। তাঁকে নিয়ে গাড়ি কালীঘাটের দিকে রওনা হয়।

সকালে চিকিৎসকেরা তাঁর বাঁ পায়ের প্লাস্টার কেটে দেখেছেন ফোলা অনেকটাই কমেছে, ব্যথাও কম, অবস্থা ভালোর দিকে এগোচ্ছে। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আর হাসপাতালে থাকতে চাইছিলেন না। তাঁর অনুরোধে সাড়া দিয়ে ডাক্তাররা জানান, এখন ওঁর যা অবস্থা, তাতে বাড়িতে থেকেও চিকিৎসা করা সম্ভব। তবে আপাতত চিকিৎসকদের তত্ত্বাবধানেই তাঁকে থাকতে হবে। আরও তিন-চার দিন বাড়িতে চিকিৎসার পর সোমবার থেকে তিনি হয়তো রাজনৈতিক কাজে আবার যোগ দিতে পারেন, তবে সেটা ঠিক করা হবে সোমবার সকালে তাঁকে ভাল করে পরীক্ষার পর অবস্থা বুঝে।

সরাসরি লিংক

মুখ্যমন্ত্রীর বাড়ি ফেরার প্রস্তুতি হিসেবে আজ সকালে হাসপাতালে কয়েকটি হুইলচেয়ার এনে বারবার করে সেগুলো পরীক্ষা করে নেওয়া হয়েছে। তারই একটিতে বসেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর ইচ্ছে, হুইলচেয়ারে করেই ভোটের প্রচারে বেরোনো। আপাতত ঠিক রয়েছে, আকস্মিকভাবে আহত হয়ে কলকাতায় ফিরে আসার ফলে যে নির্বাচনী ইশতেহার তিনি নন্দীগ্রাম থেকে প্রকাশ করতে পারেননি, সেটি রবিবার ১৪ই মার্চ নন্দীগ্রাম দিবসেই তাঁর কালীঘাটের বাড়ি থেকে প্রকাশ করা হবে। নন্দীগ্রাম দিবসের তাৎপর্য তৃণমূলের কাছে বিরাট। সুতরাং দু'তিনদিনের এই দেরিতে কোনও ক্ষতি হবে না বলেই তৃণমূল নেতৃত্ব মনে করছেন।

XS
SM
MD
LG