অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

১৫ই জুলাই মার্কেল আসছেন যুক্তরাষ্ট্র সফরে


File Picture

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ১৫ই জুলাই জার্মান চান্সালার আঙ্গেলা মার্কেলকে ওয়াশিংটনে স্বাগত জানাচ্ছেন। মনে করা হচ্ছে, প্রায় ১৬ বছর ধরে ইউরোপের বৃহত্তম অর্থনীতির শীর্ষে থাকা মার্কেলের জার্মান চান্সালার হিসেবে এটিই হবে শেষ ওয়াশিংটন সফর। শুক্রবার ইংল্যান্ডে জি-সেভেন শীর্ষ সম্মেলনের প্রথম দিনেই এই ঘোষণাটি দেওয়া হয়। বাইডেন তাঁর পদে আসীন হবার পর এরই মধ্যে জাপান ও দক্ষিণ কোরিয়ার নেতাদের হোয়াইট হাউজে স্বাগত জানিয়েছেন।

হোয়াইট হাউজের প্রেস সচিব জেন সাকি বলেন বাইডেন এবং মার্কেল, “কভিড-১৯ মহামারি নির্মূল করা, জলবায়ু পরিবর্তনের হুমকির মোকাবিলা করা এবং আমাদের অভিন্ন গণতান্ত্রিক মূল্যবোধের উপর ভিত্তি করে অর্থনৈতিক সমৃদ্ধি ও আন্তর্জাতিক নিরাপত্তাকে এগিয়ে নেওয়ার মতো অভিন্ন চ্যালেঞ্জগুলোর বিষয়ে ঘনিষ্ঠ সহযোগিতা সম্পর্কে তাঁদের প্রতিশ্রুতি নিয়ে আলোচনা করবেন”।

রাশিয়ার তেল ইউরোপে পাঠানোর জন্য ১১০০ কোটি ডলারের নর্ড স্ট্রিম টু পাইপ লাইন সম্পন্ন করার বিষয়ে ইউরোপের সঙ্গে সম্পর্কে একটু টান লক্ষ্য করা যায় ঠিক যখন যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্পের আমলের পর এখন যখন বার্লিন ও ওয়াশিংটন তাদের সম্পর্ক পুণঃনির্মাণে ইচ্ছুক। তবে এই পাইপলাইন নির্মাণে নিযুক্ত কোম্পানির উপর থেকে যুক্তরাষ্ট্র নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করে নিয়েছে।

মার্কলের এই সফরের ঠিক আগে ১০ই জুলাই, এয়ারবাস এবং বোয়িংকে ভর্তুকি প্রদানের বিষয় নিয়ে ইউরোপ ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যকার প্রায় ১৭ বছর ব্যাপী বিবাদ নিস্পত্তির শেষ সময়সীমা।

XS
SM
MD
LG