অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

ম্যাটিস: ইরানের সঙ্গে পরমানু চুক্তির ব্যাপারে যুক্তরাষ্ট্র চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেয়নি


.

যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিরক্ষা মন্ত্রী জিম ম্যাটিস বলছেন যে ২০১৫ সালের ইরানের সঙ্গে পরমাণু চুক্তি পরিত্যাগ করার ব্যাপারে এখনো কোন সিদ্ধান্ত হয়নি। তবে ওয়াশিংটন তার ইউরোপীয় মিত্রদের সঙ্গে এই বিষয়টি খতিয়ে দেখেছে যে ঐ চুক্তিতে কিছু ইতিবাচক পরিবর্তন আনা যায় কীনা।

সেনেটে সশস্ত্র বাহিনীর বিষয়ক কমিটির এক শুনানিতে আজই ম্যাটিস বলেছেন যে এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত এখনো হয়নি যে আমরা ঐ চুক্তিটির কোন সংস্কার সাধন করতে পারবো কীনা , নাকি প্রেসিডেন্ট এই চুক্তি থেকে বেরিয়ে আসার সিদ্ধান্ত নেবেন।

ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইম্যানুয়েল ম্যাক্রঁ গতকার বুধবার বলেন যে তাঁর মনে হয় যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্প , তেহরানকে তার পরমাণু অস্ত্র তৈরি করতে প্রতিহত করার জন্য ইরানের সঙ্গে পরমাণু চুক্তি থেকে যুক্তরাষ্ট্রকে প্রত্যাহার করে নেবেন।

যুক্তরাষ্ট্রে তাঁর তিনদিনের রাষ্ট্রীয় সফর শেষে তিনি এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন যে তিনি ঠিক জানেন না আমেরিকান সিদ্ধান্ত কি হবে কিন্তু প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের বিবৃতিগুলোর যৌক্তিক বিশ্লেষণ করে মনে হচ্ছেনা যে তিনি ইরানের সঙ্গে পরমাণু চুক্তি বজায় রাখার জন্য সব কিছু করতে প্রস্তুত আছেন।

যখন তাঁকে জিজ্ঞেষ করা হয় যে এ রকম সিদ্ধান্ত নিলে তিনি কি তাঁর ব্যক্তিগত ব্যর্থতা বলে মনে করেন, ম্যাক্রঁ বলেন , তিনি ট্রাম্পকে তাঁর নির্বাচনী প্রচার অভিযানের প্রতিশ্রুতি প্রত্যাহার করার জন্য বোঝাতে আসেননি , তিনি বরঞ্চ এ কথা প্রমাণ করতে চেয়েছেন যে ঐ চুক্তিটি অর্থবহ।

বুধবার আরো আগের দিকে তিনি যুক্তরাষ্ট্রের বিধায়কদের প্রতি এটা নিশ্চিত করার আহ্বান জানিয়েছেন যেন যুক্তরাষ্ট্র ইরানের সঙ্গে স্বাক্ষরিত পরমাণু চুক্তি পরিত্যাগ না করে। যুক্তরাষ্ট্রের কংগ্রেসের উভয় কক্ষের যৌথ অধিবেশনে ৪৯ মিনিটের এই ভাষণে ম্যাক্রঁ বলেন ইরান কখনই পরমাণু অস্ত্রের অধিকারি হতে পারবে না , ৫ বছরে নয় , ১০ বছরে নয় , কখনই নয়। ম্যাক্রঁ যখন বহু পাক্ষিকতার বিষয়ে আমেরিকান ইতিহাসের প্রশংসা করেন এবং বলেন যে ইউরোপ এবং যুক্তরাষ্ট্রকে একত্রে ২১ শতকের এই সব নতুন চ্যালেঞ্জ এবং হুমকি মোকাবিলা করতে হবে , তখন বিধায়করা হাত তালি দিয়ে তাঁকে অভিনন্দিত করেন।

XS
SM
MD
LG