অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

মিয়ান্মারে বিক্ষোভকারিদের বিরুদ্ধে সামরিক বাহিনীর দমননীতি অব্যাহত


Miyanmir

মিয়ান্মারের বিভিন্ন শহরে অভূত্থান বিরোধীদের ছত্রভঙ্গ করার জন্য পুলিশ ও নিরাপত্তা বাহিনী শক্তি প্রয়োগ করে। বিক্ষোভকারিরা আজ আবার রাস্তায় নেমে আসে। এর ঠিক একদিন আগেই জাতিসংঘের দূত হুন্তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে এবং গণতন্ত্র পূণর্বহাল করতে নিরাপত্তা পরিষদের প্রতি আহ্বান জানান।

আজ ইয়াঙ্গুনে প্রতিবাদের খবর পাওয়া গেছে যেখানে সামরিক বাহিনী বিক্ষোভকারীদের বিরুদ্ধে স্টান গ্রেনেড এবং কাঁদানে গ্যাস নিক্ষেপ করে। বুধবার সেখানে ১৮ জন নিহত হবার খবর পাওয়া গেছে যার ফলে মোট নিহতের সংখ্যা দাঁড়ায় ৫০‘এ। উত্তর থেকে দক্ষিণে, পূর্ব থেকে পশ্চিমে বিভিন্ন শহরে প্রতিবাদ হয়েছে যেখানে পুলিশ ও নিরাপত্তা বাহিনী কাঁদানে গ্যাস ও রাবার বুলেট ব্যবহার করে।

মিয়ান্মার বিষয়ক জাতিসংঘের বিশেষ দূত শ্র্যানার বার্গেনার গতকাল নিরাপত্তা পরিষদকে প্রতিবাদকারীদের উপর মিয়ান্মারের সামরিক বাহিনীর মারণাস্ত্র ব্যবহারের বিরুদ্ধে একতাবদ্ধ থাকার আহ্বান জানান। তিনি এক রুদ্ধদ্বার বৈঠকে বলেন, “এই দমন থামাতে হবে। এটা গুরুত্বপূর্ণ যে, এই পরিষদ যেন একতাবদ্ধ ভাবে নিরাপত্তা বাহিনীকে সতর্ক করে দেয় এবং নভেম্বরের নির্বাচনের ফলাফলের সমর্থনে মিয়ান্মারের জনগণের সঙ্গে থাকে"। তিনি সতর্ক করে দেন যে, জাতিসংঘের প্রতি জনগণের আশা-ভরসা ক্রমশই ক্ষয়ে যাচ্ছে।

XS
SM
MD
LG