অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

মিয়ানমার কর্তৃপক্ষ: রাখাইনে সহিংসতায় ৪০০ জনের প্রাণহানি


মিয়ান্মারের সামরিক কর্মকর্তারা বলছেন যে গত এক সপ্তায় সেখানকার রাখাইন রাজ্যে সহিংসতায় প্রায় চার শ লোক প্রাণ হারিয়েছে যাদের বেশির ভাগই মুসলিম বিদ্রোহী। সামরিক বাহিনীর ফেইসবুক পাতায় বলছে যে নিহতদের মধ্যে ৩৭০ জনই বিদ্রোহী এবং নিহত ২৯ জনের মধ্যে পুলিশ এবং অসামরিক লোকজন ছিল।

তবে সংখ্যালঘু রোহিঙ্গা মুসলিম সম্প্রদায় জানাচ্ছে যে তাদের গ্রামের উপর হামলা হয়েছে এবং হাজার হাজার লোক পালিয়ে যেতে বাধ্য হয়েছে।

আজ হিউমান রাইটস ওয়াচ বলেছে যে বৃহস্পতিবার , রোহিঙ্গা মুসলিমদের গ্রাম চেইন খার ‘এ রেকর্ড করা স্যাটেলাইট ছবিতে দেখা যাচ্ছে সে খানে ৭০০ ভবন বিধ্বস্ত হয়েছে। অধিকার গোষ্ঠিটি বলছে যে গ্রামটির ৯৯ শতাংশই ধ্বংস করে ফেলা হয় এবং এই সব ধ্বংসযজ্ঞে অগ্নিসংযোগের চিহ্ন পাওয়া গেছে যার মধ্যে রয়েছে পুড়ে যাওয়া গাছ। হিউমান রাইটস ওয়াচের এশিয়া বিষয়ক উপ পরিচালক ফিল রবার্টসন বলছেন যে যে ১৭ টি জায়গায় অগ্নিসংযোগ করা হয়েছে বলে আমরা সনাক্ত করেছি এটি হচ্ছে , সেগুলোর মধ্যে মাত্র একটি।

জাতিসংঘ বলছে প্রায় আটত্রিশ হাজার লোক, যাদের বেশির ভাগই রোহিঙ্গা মিয়ান্মার থেকে পালিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে। বাংলাদেশে স্থানীয় সদস্যরা ভয়েস অফ আমেরিকাকে জানিয়েছেন যে মিয়ান্মারের অপর সংখ্যালঘু , বেশ কিছু হিন্দু্ো সীমান্ত পেরিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে। রবার্টসন বলেছেন যে জাতিসংঘের মিয়ান্মার সরকারের উচিৎ হবে জাতিসংঘের ফ্যাক্ট ফাইন্ডিং মিশনের সঙ্গে পূর্ণ সহযোগিতা করা এবং রাখাইন রাজ্যে মানবাধিকার লংঘন মূল্যায়ন করা এবং জবাবদিহিতা নিশ্চিত করতে , আক্রমণগুলো বন্ধ করার উপায় বের করা ।

XS
SM
MD
LG