অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

উত্তর কোরিয়া দুটি স্বল্প পাল্লার ক্ষেপনাস্ত্র পরীক্ষা চালিয়েছে


গত শনিবার নিক্ষিপ্ত ক্ষেপনাস্ত্র

দক্ষিণ কোরিয়ার সামরিক বাহিনী আজ বৃহস্পতিবার জানিয়েছে যে বাহ্যত মনে হচ্ছে উত্তর কোরিয়া দুটি স্বল্প পাল্লার ব্যালিস্টিক ক্ষেপনাস্ত্র নিক্ষেপ করেছে। এক সপ্তারও কম সময়ের মধ্যে এই দ্বিতীয়বার পিয়ংইয়ং সরকার ক্ষেপনাস্ত্র নিক্ষেপ করলো।

দক্ষিণ কোরিয়ার জয়েন্ট চিফস অফ স্টাফ এক বিবৃতিতে জানিয়েছেন যে একটি ক্ষেপনাস্ত্র ৪২০ কিলোমিটার এবং অপরটি ২৭০ কিলোমিটার দূরত্বে পৌঁছোয়। ঐ বিবৃতিতে আরো বলা হয় যে ক্ষেপনাস্ত্রগুলো দেশের উত্তর পশ্চিমাঞ্চলের নর্থ পিয়ংগান প্রদেশ থেকে পূর্ব দিকে নিক্ষেপ করা হয় ।

দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্টের ভবন ব্লু হাউজ জানাচ্ছে যে দেশটি উত্তরের এই বাহ্যত স্বল্প পাল্লার ক্ষেপনাস্ত্র নিক্ষেপে অত্যন্ত উদ্বিগ্ন এবং তা দুই কোরিয়ার মধ্যকার সামরিক উত্তেজনাকে প্রশমিত করতে সহায়ক নয়। দক্ষিণ কোরিয়ার কর্মকর্তারা বলছেন যে এ ধরণের আরও ক্ষেপনাস্ত্র নিক্ষেপ করা হতে পারে সে জন্যই সোওল সরকার বর্ধিত নিরাপত্তা প্রস্তুতি নিচ্ছে।

শনিবারও উত্তর কোরিয়া ক্ষেপনাস্ত্র পরীক্ষা চালায় । বিশ্লেষকরা এটিকে স্বল্প পাল্লার ক্ষেপনাস্ত্র বলে বর্ননা করেছেন । এর আগে ২০১৭ সালের নভেম্বর মাসের পর কিম জং ঊন আর কোন ক্ষেপনাস্ত্র পরীক্ষা চালাননি।

এই সর্বসাম্প্রতিক পরীক্ষাটি এমন এক সময়ে চালানো হলো যখন উত্তর কোরিয়া বিষয়ক যুক্তরাষ্ট্রের বিশেষ প্রতিনিধি স্টিফেন বাইগুন , সোওলে দক্ষিণ কোরিয়ার কর্মকর্তাদের সঙ্গে দেখা করছেন।

এ সব পরীক্ষা উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং ঊন এবং যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্পের মধ্যে পরমাণু সম্পর্কিত সম্ভাব্য আলোচনায় আরো বিঘ্ন সৃষ্টি করার হুমকি স্বরূপ বলে মনে করা হচ্ছে।

XS
SM
MD
LG