অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

সাত সেনার মৃত্যুর বদলা নিতে ফের নিয়ন্ত্রণরেখায় পাকিস্তানের একতরফা গুলিবর্ষণ


ভারতীয়দের হাতে সাত সেনার মৃত্যুর বদলা নিতে ফের নিয়ন্ত্রণরেখায় একতরফা গুলিবর্ষণ শুরু করল পাকিস্তান। জম্মু কাশ্মীরের আখনুর এলাকার পাল্লানওয়ালা সেক্টরে আজ মঙ্গলবার সকাল থেকে গুলি চালায় তারা।

গতকাল সোমবারই পাকিস্তান স্বীকার করে, নিয়ন্ত্রণরেখায় ভারতীয় সেনার গুলিবর্ষণে সাত পাক সেনার মৃত্যু হয়েছে। এই ঘটনা ‘শান্তির পক্ষে বিপজ্জনক’ বলে মন্তব্য করে তারা। পাকিস্তানে নিযুক্ত ভারতীয় হাইকমিশনার গৌতম বাম্বাওয়ালেকে সমন পাঠিয়ে এ ব্যাপারে উদ্বেগ প্রকাশ করে পাক বিদেশমন্ত্রক। তাদের গোয়েন্দা সংস্থা আইএসআই-ও এক বিবৃতিতে স্বীকার করে নিয়েছে, রবিবার রাতে ভারতীয় জওয়ানদের গুলিতে ভীমবার সেক্টরে মারা গেছেন ৭ পাক সেনাকর্মী। নজিরবিহীনভাবে নিজেদের তরফে ক্ষয়ক্ষতির কথা স্বীকার করল পাকিস্তান। এমনকি সার্জিক্যাল স্ট্রাইকের কথাও টানা অস্বীকার করে গিয়েছে তারা।

এদিকে, ভারতীয় প্রতিরক্ষামন্ত্রক জানিয়েছে, সোমবার থেকে নিয়ন্ত্রণরেখা বরাবর জম্মু, রাজৌরি ও পুঞ্চ জেলায় পাক সেনা একতরফা গুলি চালাতে শুরু করে। এতে আহত হন ১ জওয়ানসহ ২জন। রাজৌরির সুন্দরবানি ও নওশেরা সেক্টর ও জম্মুর পাল্লানওয়ালা সেক্টরে মঙ্গলবার সকাল থেকে গুলিবর্ষণ করছে পাকিস্তান। ৮২ মিলিমিটার মর্টার বম্ব ও স্বয়ংক্রিয় রাইফেল দিয়ে রাত আড়াইটের পর থেকে ভারতীয় এলাকা লক্ষ্য করে হামলা চালাচ্ছে তারা। ভারতীয় নিরাপত্তারক্ষীরাও পাক গুলিবর্ষণের জবাব দিচ্ছে বলে জানিয়েছে প্রতিরক্ষামন্ত্রক।

পাকিস্তান ইতোমধ্যেই ভারতীয় প্রশাসনের কাছে অভিযোগ করেছে, ভারতীয় সেনা পাকিস্তানের ‘সাধারণ নাগরিকদের' টার্গেট করেছে। গত কয়েক সপ্তাহে অন্তত ২৫জনের নাকি মৃত্যু হয়েছে ভারতীয় গোলাবর্ষণে। একই অভিযোগ তারা করেছে রাষ্ট্রপুঞ্জের মিলিটারি পর্যবেক্ষকদেরও। কিন্তু যেভাবে সার্জিক্যাল স্ট্রাইকের পর থেকে পাকিস্তান একতরফা ২৮৬বার যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘন করেছে, তাতে ‘যুদ্ধবিরতি’ শব্দটিই হাস্যকর হয়ে উঠেছে বলে মনে করছে দিল্লি। বারবার পাক হামলায় ২৬জনের মৃত্যু হয়েছে, এঁদের মধ্যে ১৪জন নিরাপত্তাবাহিনীর জওয়ান বলেই ভারতীয় সেনা সূত্রের খবর। কলকাতা থেকে পরমাশিষ ঘোষ রায়।

please wait

No media source currently available

0:00 0:02:03 0:00

XS
SM
MD
LG