অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

গোয়েন্দা অ্যাপ দিয়ে রাহুল গান্ধীসহ ভারতের বিরোধী দলের নেতাদের ওপর নজর রাখা হচ্ছে- 'দ্য ওয়্যার'


কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী। - রয়টার্স

কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী, নির্বাচনী কৌশল সংক্রান্ত উপদেষ্টা প্রশান্ত কিশোর, তৃণমূল নেতা অভিষেক ব্যানার্জি, এমনকি কেন্দ্রীয় মন্ত্রীরাও ইজরায়েলি স্পাইওয়্যার 'পেগাসাস'-এর নজরবন্দি হয়ে রয়েছেন। আজ নিরপেক্ষ সংবাদ প্রতিষ্ঠান 'দ্য ওয়্যার' এ খবর দিয়েছে।

কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী, নির্বাচনী কৌশল সংক্রান্ত উপদেষ্টা প্রশান্ত কিশোর, তৃণমূল নেতা অভিষেক ব্যানার্জি, এমনকি কেন্দ্রীয় মন্ত্রীরাও ইজরায়েলি স্পাইওয়্যার 'পেগাসাস'-এর নজরবন্দি হয়ে রয়েছেন। আজ নিরপেক্ষ সংবাদ প্রতিষ্ঠান 'দ্য ওয়্যার' এ খবর দিয়েছে।

বলা হয়েছে, বিরোধী রাজনৈতিক নেতাদের উপর নজর রাখার জন্য এই স্পাই অ্যাপ ব্যবহার করা হচ্ছে। বিশেষ করে রাহুল গান্ধীর উপর নজর এতই বেশি যে, গত বছর কয়েক ধরে তাঁর দু'টি ফোন ট্যাপ করা হচ্ছে। ২০১৮ সালের মাঝামাঝি থেকে ২০১৯ সালের মাঝামাঝি পর্যন্ত ওই ট্যাপিং চলেছে বলে নিশ্চিত ভাবে জানা গিয়েছে। তবে তারই মধ্যে রাহুল গান্ধী কিছু একটা আন্দাজ করে সেই ফোন নম্বর বদলে ফেলেছেন।

অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনালের নিরাপত্তা সংক্রান্ত গবেষণাগার ডিজিটাল ফরেন্সিক পরীক্ষা করে জানিয়েছে, পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভা নির্বাচনের আগে তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ভোট কৌশলী প্রশান্ত কিশোরের মোবাইল ফোনও পেগাসাস এর নজরে ছিল।

'দ্য ওয়্যার' জানিয়েছে, অভিষেক ব্যানার্জি তৃণমূল কংগ্রেসের একজন ক্ষমতাবান নেতা এবং পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জির ভাইপো। তাই তিনি পেগাসাস-এর লক্ষ্য হিসেবে চিহ্নিত ছিলেন। এমনকি কেন্দ্রীয় তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণবও এর থেকে রেহাই পাননি।

তবে আজ সোমবার লোকসভায় এ বিষয়ে আলোচনা হলে বৈষ্ণব সেই অভিযোগ বাতিল করে দিয়েছেন। তাঁর বক্তব্য, ভারতীয় গণতন্ত্রের নিন্দা করার জন্যই এইসব রিপোর্ট প্রকাশ করা হচ্ছে।

তবে রাহুল গান্ধী এই নিয়ে আলোচনার দাবি তুলবেন বলে ঘোষণা করেছেন। দেখা যাচ্ছে, অধিকাংশ ক্ষেত্রেই বিরোধী নেতা বা নির্বাচনের সঙ্গে যুক্ত ব্যক্তিরা পেগাসাস এর লক্ষ্যবস্তুতে পরিণত হয়েছেন।

XS
SM
MD
LG