অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

পেন্সের সঙ্গে তাইওয়ানি প্রতিনিধির ব্যতিক্রমী বৈঠক


যুক্তরাষ্ট্রের ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স , পাপুয়া নিউ গিনিতে আঞ্চলিক অর্থনৈতিক ফোরামে তাইওয়ানের প্রতিনিধি মরিস চাং এর সঙ্গে বহুল আলোচিত বৈঠকের পর আজ শনিবার সফররত সাংবাদিকদের বলেছেন যে যুক্তরাষ্ট্র যে যুক্তরাষ্ট্র “Taiwan Relations Act এবং “One China Policy অর্থাৎ এক চীন নীতি অব্যাহত রাখবে।

পাপুয়া নিউ গিনির পোর্ট মরেসবাইতে অ্যাপেক বা এশীয় প্রশান্তমহাসাগরীয় অর্থনৈতিক সহযোগিতার শীর্ষ সম্মেলনের পার্শ্ব বৈঠকে চাং এর সঙ্গে বৈঠক করেছেন। এটি হচ্ছে বেশ কয়েক বছরের মধ্যে কোন উচ্চ পর্যায়ের অর্থনৈতিক সমাবেশে যুক্তরাষ্ট্রের একজন শীর্ষ নেতার সঙ্গে তাইওয়ানের প্রতিনিধির একান্ত আলোচনা।

আমেরিকান কর্মকর্তারা বলছেন যে অ্যাপেকের এই বৈঠকে যোগদানকারী চীনা প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং এর সঙ্গে পেন্সের পৃথক কোন দ্বিপাক্ষিক বৈঠক করার পরিকল্পনা নেই। এটি হচ্ছে চীনের প্রতি যুক্তরাষ্ট্রের দৃঢ় নীতির প্রকাশ। চীন দাবি করে যে গণতান্ত্রিক ভাবে স্বায়ত্বশাসিত তাইওয়ান হচ্ছে তাদেরই অঞ্চল। বিশ্লেষকরা বলছেন যে যুক্তরাষ্ট্র-তাইওয়ান সম্পর্ক জোরালো করার মানে এ নয় যে এতে যুক্তরাষ্ট্র-চীন সম্পর্কে কোনরকম বিরক্তি দেখা যাবে।

ওয়াশিংটনের এক চীন নীতি এবং চীনেরও এক চীন নীতির অর্থ হচ্ছে এই যে যুক্তরাষ্ট্র , চীন ও তাইওয়ান উভয়ের মধ্যে শান্তিপূর্ণ ভাবে ভবিষ্যতে একটি নিস্পত্তিতে পৌছুনোর সম্ভাবনা খোলা রাখছে।

পেন্স বলেন যে তাদের সঙ্গে আলোচনা বিষয় ছিল অর্থনীতি । তারা তাদের সঙ্গে মুক্ত বানিজ্য চুক্তি সম্পাদন বিবেচনার জন্য যুক্তি তুলে ধরে এবং পেন্স তাদের নিশ্চয়তা দেন এই আগ্রহের বিষয়টি তিনি ওয়াশিংটনে নিয়ে যাচ্ছেন।

এক টুইট বার্তায় তাইওয়ান সরকার বলেছে যে যুক্তরাষ্ট্র ও তাইওয়ানের মধ্যকার এই আলোচনা সামগ্রিক প্রবৃদ্ধি এবং ডিজিটাল ভবিষ্যৎ নির্মাণের মাধ্যমে আঞ্চলিক সম্পর্ককে আরও দৃঢ় করবে।

XS
SM
MD
LG