অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

আদালতে দোষী সাব্যস্ত রাজনীতিকরা ভোটে দাঁড়াতে না পারার আইন চায় ভারতের নির্বাচন কমিশন


দেশের বিচারালয়ে অর্থাৎ আদালতে দোষী সাব্যস্ত রাজনীতিকরা যাতে আর কখনও ভোটে দাঁড়াতে না পারেন, এমনই আইন চায় দেশের নির্বাচন কমিশন। এ জন্য সুপ্রিম কোর্টে আবেদন করেছে তারা। রাজনীতিক, সরকারি আমলা ও বিচারবিভাগের সঙ্গে যুক্তদের ওপর চলা মামলার তাড়াতাড়ি নিষ্পত্তি চেয়ে তারা বিশেষ আদালতেরও দাবি করেছে। প্রসংগত বলা যেতে পারে জনস্বার্থ মামলাটি সুপ্রিম কোর্টে দায়ের করেন অশ্বিনী কুমার উপাধ্যায় নামে জনৈক বিজেপি নেতা, যিনি পেশায় আইনজীবী। তিনি দাবি করেছেন আদালতে দোষী সাব্যস্ত এমন কেউ যেন ভোট, সরকারি কাজ ও বিচারবিভাগে কখনও নিযুক্ত না হতে পারেন।

কেন্দ্র ও নির্বাচন কমিশনকেও এই মামলায় যুক্ত করেন তিনি। তাঁর বক্তব্য ছিল, যতক্ষণ না প্রমাণিত অপরাধীদের রাজনীতি থেকে বার করে দেওয়া হচ্ছে, ততক্ষণ তা অপরাধীদের বিচরণক্ষেত্র হয়ে থাকবে। সরকারি চাকরি ও বিচারব্যবস্থার ক্ষেত্রেও একই দাবি করেন তিনি। পাশাপাশি বলেন, জনগণের প্রতিনিধি নির্বাচিত হওয়ার জন্য একটি ন্যূনতম যোগ্যতা ও বয়স নির্ধারিত করা হোক। নির্বাচন কমিশনের কাছে সুপ্রিম কোর্ট এ ব্যাপারে মত জানতে চাইলে তারা বলেছে, অপরাধীদের সারা জীবনের জন্য রাজনীতির আঙিনায় ঢুকতে না দেওয়ার দাবিতে সহমত পোষণ করছে তারা। তবে এ জন্য সংবিধান সংশোধন করতে হবে। সত্যিই যদি এমন আইন পাশ হয়, তা হলে লালুপ্রসাদ যাদব, ও পি চৌতালা ও শশীকলাদের মত নেতানেত্রীরা চরম বেকায়দায় পড়বেন বলেই মনে করছেন দেশের রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা।

XS
SM
MD
LG