অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

থাইল্যান্ডে সরকার বিরোধী ও রাজতন্ত্রের সমর্থকরা পরস্পর মুখোমুখি


থাইল্যান্ডে হাজার হাজার সরকার বিরোধী বিক্ষোভকারী এবং রাজা মহা ভাজিরালংকর্ণের সমর্থকরা আজ পরস্পর বিরোধী শক্তি প্রদর্শন করেছে এবং এর ফলে তিন মাস থেকে চলে আসা বিক্ষোভের পর রাজনৈতিক উত্তেজনা বৃদ্ধি পেয়েছে। সরকার বিরোধী বিক্ষোভকারিরা  ডেমক্র্যাসি মনুমেন্ট থেকে গভর্ণমেন্ট হাউজের দিকে  রওয়ানা দেয় এবং সাবেক সামরিক হুন্তার নেতা প্রধানমন্ত্রী প্রায়ুথ চান-ওচার পদত্যাগ এবং সেখানে একটি নতুন সংবিধানের দাবি জানায়।

থাইল্যান্ডে হাজার হাজার সরকার বিরোধী বিক্ষোভকারী এবং রাজা মহা ভাজিরালংকর্ণের সমর্থকরা আজ পরস্পর বিরোধী শক্তি প্রদর্শন করেছে এবং এর ফলে তিন মাস থেকে চলে আসা বিক্ষোভের পর রাজনৈতিক উত্তেজনা বৃদ্ধি পেয়েছে। সরকার বিরোধী বিক্ষোভকারিরা ডেমক্র্যাসি মনুমেন্ট থেকে গভর্ণমেন্ট হাউজের দিকে রওয়ানা দেয় এবং সাবেক সামরিক হুন্তার নেতা প্রধানমন্ত্রী প্রায়ুথ চান-ওচার পদত্যাগ এবং সেখানে একটি নতুন সংবিধানের দাবি জানায়। তারা রাজতন্ত্রের সংস্কারেরও দাবি জানায়। এই প্রতিবাদ বিক্ষোভের মাত্র কয়েক গজ দূরেই নিরাপত্তা বাহিনী, রাষ্ট্রীয় কর্মচারি এবং রাজতন্ত্রীরা রাজকীয় হলুদ পোশাক পরে দাঁড়িয়ে ছিল। কিছুক্ষণ পরেই সেখান থেকে রাজার যানবহর যাবার কথা ছিল। অল্পক্ষণের জন্য কিছু হতাহাতির পর দু পক্ষ খানিকটা দূরে গিয়ে দাঁড়ায় তবে এই থমথমে ভাব সেই দেশে গোলযোগ সৃষ্টির আশংকা বাড়িয়ে তোলে যে দেশটি ২০১৪ সালের সামরিক অভ্যূত্থানের আগে পর্যন্ত প্রায় এক দশক ধরে সরকারের সমর্থক ও সরকার বিরোধীদের মধ্যে রাস্তায় রাস্তায় সহিংসতার ক্ষেত্র হয়ে দাঁড়িয়েছিল।

এবার মঙ্গলবার বিক্ষোভকারীরা খুব ব্যতিক্রমী ভাবেই রাজার প্রতি চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দেয় এবং তাঁর যানবহর যাবার সময়ে তাঁর বিরুদ্ধে শ্লোগান দেয়। এ সময়ে পুলিশের সঙ্গে সংঘাতে ২১ জন বিক্ষোভকারীকে আটক করা হয়। পুলিশ বুধবার জানায় বিক্ষোকারীদের বিরুদ্ধে জনশৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগ আনা হবে। আইন শৃঙ্খলা বজায় রাখার জন্য প্রায় ১৫,০০০ সৈন্য মোতায়েন করা হয়।

XS
SM
MD
LG