অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

রায়হান কবিরকে বাংলাদেশে ফেরত পাঠিয়েছে মালয়েশিয়া কর্তৃপক্ষ


মালয়েশিয়ায় করোনাভাইরাস মহামারির মধ্যে অভিবাসী শ্রমিকরা বৈষম্যের শিকার হয়েছেন বলে গণমাধ্যমে কথা বলার পর দেশটির কর্তৃপক্ষ বাংলাদেশি অভিবাসী কর্মী রায়হান কবিরকে সে দেশ থেকে বহিষ্কার করলে শনিবার ভোরে তিনি দেশে ফিরেছেন।

অভিবাসী কর্মীদের নিয়ে আন্তর্জাতিক টেলেভিশন চ্যানেল আলজাজিরার একটি প্রমান্য চিত্রে সাক্ষাৎকার দেওয়ায় রায়হানকে মালয়েশিয়া পুলিশ গ্রেফতার করে এবং প্রায় এক মাস আটক রাখার পর তার বিরুদ্ধে কোন অভিযোগ উত্থাপন না করেই বাংলাদেশে ফেরত পাঠিয়ে দেয়।

ফাইল ফটো
ফাইল ফটো

দীর্ঘ ছয় বছর মালয়েশিয়ায় কর্মরত থাকার পর দেশে ফিরে সংবাদ মাধ্যমের কাছে তিনি তাঁর আনন্দের কথা জানান। তিনি বাংলাদেশের সংবাদ মাধ্যম এবং দেশে-বিদেশে যারা তাঁর পাশে ছিলেন তাঁদের সকলকে কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন।রায়হানকে গ্রেফতারের পর দেশ এবং বিদেশের সংবাদ মাধ্যমে মালয়েশিয়া কর্তৃপক্ষ কর্তৃক তাঁর বাক স্বাধীনতার অধিকারে হস্তক্ষেপ করার বিষয়টির সমালোচিত হয়েছে।বিভিন্ন দেশি বিদেশি মানবাধিকার এবং সুশীল সমাজের সংগঠন সমূহ তাঁর গ্রেফতারের নিন্দা জানিয়ে একে মানবাধিকারের লঙ্ঘন এবং বাক স্বাধীনতা হরণের নজিরবিহীন উদাহরণ বলে আখ্যায়িত করেছে। তারা অবিলম্বে তাঁর মুক্তিরও দাবীও তুলেছিল।

রায়হানের বিষয়ে বাংলাদেশের বিশিষ্ট মানবাধিকার কর্মী এডভোকেট জিয়া হাবিবের মতামত জানতে চাইলে তিনি একে মানবাধিকারের চরম লঙ্ঘন বলে আখ্যায়িত করেছেন।মানবাধিকার সংগঠন এবং সুশীল সমাজ বিদেশে কর্মরত বাংলাদেশী অভিবাসীদের অধিকার ও স্বার্থ সুরক্ষার লক্ষে তৎপরতা বাড়ানোর জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে।

please wait

No media source currently available

0:00 0:02:25 0:00
সরাসরি লিংক


XS
SM
MD
LG