অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

রোহিঙ্গা শরণার্থীদের প্রত্যাবাসন ও সংশ্লিষ্ট বিষয়ে আসিফ মুনীরের মূল্যায়ন


Rohingya Camp in Cox's Bazar, Bangladesh

বাংলাদেশে আশ্রয় গ্রহণকারী রোহিঙ্গা শরণার্থীদের নিজ দেশ মিয়ানমারে প্রত্যাবাসনে অবশেষে মিয়ানমার সরকার জাতিসংঘ এবং এর সংস্থা ইউএনএইচসিআরকে প্রত্যাবাসন প্রক্রিয়ায় সংযুক্ত করতে সম্মত হয়েছে। শিগগিরই এ লক্ষ্যে মিয়ানমার ইউএনএইচসিআর-এর সাথে একটি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর করবে বলে ঘোষণা দিয়েছে। এছাড়া আগামী ১১ এপ্রিল তিন দিনের বাংলাদেশ সফরে আসবেন মিয়ানমারের সমাজকল্যাণ এবং পুনর্বাসন মন্ত্রী। তিনি কক্সবাজারের রোহিঙ্গা ক্যাম্পও পরিদর্শন করবেন বলে কর্মসূচি রয়েছে। এদিকে, বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী অতিসম্প্রতি রাশিয়া সফর করেছেন এবং রোহিঙ্গা সংকট সমাধান-বিশেষ করে রোহিঙ্গাদের পুনর্বাসন এবং প্রত্যাবাসনে রাশিয়ার সমর্থন কামনা করেছেন।

এ সব বিষয়ে বিশ্লেষণ করেছেন শরণার্থী এবং অভিবাসন বিষয়ক বিশ্লেষক আসিফ মুনীর। আসিফ মুনীরের কাছে প্রথমেই প্রশ্ন করা হয়েছিল, জাতিসংঘ ও ইউএনএইচসিআরকে প্রত্যাবাসন প্রক্রিয়ায় মিয়ানমারের সংযুক্ত করতে সম্মত হওয়ার বিষয়ে।
ঢাকায় বিশ্লেষকরা বলছেন, যে ঘটনাগুলো ঘটেছে তা রোহিঙ্গা পুর্নবাসন এবং প্রত্যাবাসন ক্ষেত্রে নিঃসন্দেহে ইতিবাচক অগ্রগতি। বাংলাদেশকে খুবই সতর্কতা ও দক্ষতার সাথে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে সাথে নিয়ে এগিয়ে যেতে হবে।
ঢাকা থেকে বিস্তারিত জানিয়েছেন আমীর খসরু তার রিপোর্ট।

please wait

No media source currently available

0:00 0:05:53 0:00

XS
SM
MD
LG