অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

কতগুলো সাংবিধানিক সংস্কারকে অনুমোদন করেছে রাশিয়ার ভোটদাতারা


রাশিয়ার ভোটদাতারা কতগুলো সাংবিধানিক সংস্কারকে অনুমোদন করেছে যার মধ্যে এমন সম্ভাবনাও রয়েছে যে প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ২০৩৬ সাল পর্যন্ত প্রেসিডেন্ট পদে বহাল থাকতে পারবেন। আজ ক্রেমলিনের মুখপাত্র দ্যমিত্রি পেসকফ এটিকে বিজয় বলে অভিহিত করেন। তবে বিরোধী দলের নেতারা এবং নির্বাচন পযবেক্ষকরা বুধবার শেষ হ্ওয়া এই ভোটের বৈধতা সম্পর্কে সন্দেহ প্রকাশ করেছেন । অন্যান্য উদ্বেগের মধ্যে তাঁরা জানিয়েছেন যে কোন কোন অঞ্চলে ভোটদাতাদের উপস্থিতি কৃত্রিম ভাবে অনেক বেশি ছিল। বিরোধী রাজনীতিক অ্যালেক্সি নাভালনি বলেন আমরা কখনই এই ফলাফল মেনে নেবো না। নির্বাচনী কর্মকর্তারা বলছেন সততার সঙ্গেই ভোট সম্পন্ন হয়েছে।

৬৭ বছর বয়সী পুতিন হয় প্রেসিডেন্ট নয়ত প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দু দশকেরও বেশি সময় ধরে ক্ষমতায় রয়েছেন এবং এই সংস্কারের ফলে ২০২৪ সালে তাঁর বর্তমান মেয়াদ শেষ হয়ে যাবার পরও তিনি ৬ বছর মেয়াদের জন্য আরো দুবার নির্বাচনে দাঁড়াতে পারবেন। সব ভোট গণনা শেষে আজ নির্বাচন কর্মকর্তারা জানিয়েছেন যে এই সংস্কারের পক্ষে ৭৭.৯% এবং বিপক্ষে ২১.৩% ভোট পড়েছে। পুতিন বলেছেন যে ২০২৪ সালের কাছাকাছি এসে তিনি জানাবেন যে তিনি পরবর্তী মেয়াদের জন্য নির্বাচনে দাঁড়াবেন কী না।

এই সাংবিধানিক সংস্কার প্রস্তাবের মধ্যে আরও আছে অবসর ভাতার সুরক্ষা প্রদান এবং একই লিঙ্গের বিয়ের উপর প্রকারান্তরে নিষেধাজ্ঞা আরোপ। এই ভোট চলেছে এক সপ্তারও বেশি সময় ধরে যাতে করে করোনাভাইরাস সংক্রমণ রোধে ভোট কেন্দ্রে স্বল্প সংখ্যক লোক যেতে পারেন।

XS
SM
MD
LG