অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

হোতি বিদ্রোহীরা সৌদি স্থাপনায় হামলার দায়ীত্ব নিল


সৌদি আরবের দুটি বড় তেল স্থাপনার উপরে সপ্তাহান্তে যে ড্রোন এবং ক্ষেপণাস্ত্র হামলার হয় তার প্রতিক্রিয়া হিসাবে পরবর্তী সিদ্ধান্ত সৌদি আরব এবং আমেরিকা কি গ্রহণ করবে তারই জন্য বিশ্ব যখন অপেক্ষা করছিল ঠিক তখনই যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও ঐ অঞ্চল সফর করলেন। তিনি জোরালো এক বিবৃতিতে স্পষ্ট ভাবেই সৌদি আবরের তেল স্থাপনায় হামলার জন্য ইরানকে দায়ী করেছেন এবং একে "এক্ট অফ ওয়ার" বলে অবিহিত করেন।

ঐ আক্রমণের প্রায় সংগে সংগে পররাষ্ট্রমন্ত্রী পম্পেও যিনি কংগ্রেসের সাবেক সদস্য এবং সিআইএর সাবেক প্রধান ছিলেন তিনি এক টুইট বার্তায় বলেন, "যেখান থেকে বিশ্বের সর্বত্র জ্বালানী তেল সরবরাহ করা হয় সেখানেই ইরান নজির বিহীন আক্রমণ চালিয়েছে।" তবে সৌদি আরবের প্রতিবেশী রাষ্ট্র ইয়েমেনের হোতি বিদ্রোহী দল হামলার দায়িত্ব স্বীকার করে বলেছে, গত কয়েক বছর ধরে সৌদি বিমান বাহিনী ইয়েমেনের উপরে বোমা হামলা চালিয়ে হাজার হাজার নাগরিককে যে হত্যা করেছে তারই প্রতিশোধ মূলক পালটা আক্রমণছিল এটা।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডনালড ট্রাম্প ইরানের ওপর অতিরিক্ত নিষেধাজ্ঞা আরোপের নির্দেশ দিয়েছেন। সৌদি আরবের তেল স্থাপনা আক্রমণে তেহরান দায়ী খবর পাওয়ার পর ট্রাম্প এই নির্দেশ দেন। ট্রাম্প বুধবার বলেন, অর্থমন্ত্রী স্টিভেন মানুসিনকে বিদ্যমান নিষেধাজ্ঞা আরও কঠোর করার নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।

XS
SM
MD
LG