অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

গোয়েন্দা তথ্য অনুযায়ী সিলেটের পাঠান পাড়ায় একটি ভবনে আশ্রয় নিয়েছিল জঙ্গীরা। এমন তথ্যের উপর ভিত্তি করে অভিযান শুরু করে আইন শৃঙ্খলা বাহিনী। বেশ কয়েকদিন ধরে ভবনটির ভিতর থেকে জঙ্গীরা গুলি ও বোমা ছুড়তে শুরু করে। এরই পরিপ্রেক্ষিতে আইন শৃঙ্খলা বাহিনী জঙ্গীদের নিরস্ত্র করার চেষ্টা চালাতে থাকে।

সোমবার সন্ধ্যায় সামরিক গোয়েন্দা অধিদপ্তরের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ফকরুল আহসান জানান, যে ভবনে জঙ্গীরা ছিল তার প্রতিটি কক্ষ তল্লাসি করা হয়েছে। সেখানে আর কোন জঙ্গী নেই। তবে এরই মধ্যে দুটি মরদেহ পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। আর বাকি দুজনের দেহে সুইসাইডাল ভেস্ট লাগানো আছে। তবে সেনা বাহিনী বলছে পরিস্থিতি তাদের নিয়ন্ত্রনে আছে।

জঙ্গী নির্মূলে বাংলাদেশ সরকারের চেষ্টা অব্যাহত থাকবে, তেমনটি জানানো হয়েছে সরকারের পক্ষ থেকে। নাসরিন হুদা বিথী।

XS
SM
MD
LG