অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

আফগানিস্তান ও তাইওয়ান পরিস্থিতি এক নয়


পতাকা হাতে সামরিক মহড়ায় অংশগ্রহণরত তাইওয়ানের সেনা সদস্য, ফাইল ছবি, ১৯শে জানুয়ারী, ২০২১ - এপি

চীনের সংবাদ মাধ্যম আফগানিস্তান ও তাইওয়ানের দুটি পরিস্থিতির সম্পর্ক টানলে, সমীক্ষকেরা ভয়েস অব আমেরিকাকে জানান, যুক্তরাষ্ট্রের সেনাদের আফগানিস্তান থেকে প্রত্যাহারের সঙ্গে তাইওয়ানে যুক্তরাষ্ট্রের ভূমিকার কোনো তুলনা করা যাবে না, কারণ ঐ দ্বীপে যুক্তরাষ্ট্রের কোনো সেনা মোতায়েনরত নেই এবং চীনেরও সেখানে কোনো বাস্তব ঘাঁটি নেই।

পক্ষান্তরে, তারা জানান, যুক্তরাষ্ট্র এখন আরো ভালোভাবে তাইওয়ানকে সহায়তা দিতে পারবে, কারণ তাদের সামরিক ব্যয়ভারের কিছুটা অংশ আফগানিস্তানকে দিতে হবে না এবং সম্ভবত ওয়াশিংটনকে খাটো করার লক্ষ্যে চীন তাদের সংবাদ মাধ্যমকে ব্যবহার করতে পারবে

আফগানিস্তানে তালিবানের দ্রুত দখল এবং আমেরিকান সেনা প্রত্যাহারের পর চীন সরকার পরিচালিত ইংরেজি সংবাদপত্র গ্লোবাল টাইমস ১৬ই অগাস্ট মন্তব্য করে যে, আফগানিস্তানে সেনা প্রত্যাহারের মতো একই পরিস্থিতি তাইওয়ানকে সইতে হবেI

গ্লোবাল টাইমস ‘এর সম্পাদকীয়তে বলা হয়, “আফগানিস্তানের পরিস্থিতির দ্রুত পরিবর্তন তাইওয়ান দ্বীপের অনেককেই ভাবিয়ে তুলেছে, যা সেখানে বিচ্ছিন্নতাবাদীদের হুঁশিয়ারি বার্তা দিচ্ছে; কারণ যুক্তরাষ্ট্রের তরফে তাঁর মিত্র ও তথাকথিত জোটকে পরিত্যাগ করার ঘটনা এটি প্রথম নয়, ওয়াশিংটনের বিশ্বজনীন কুটনৈতিক কৌশলে তা শুধু,দাবা খেলার চালের মতI

XS
SM
MD
LG