অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

আমহারা এলাকায় বেসামরিক জনগণকে হত্যার অভিযোগ অস্বীকার করেছে টিগ্রায় বিদ্রোহী বাহিনী


আমহারা স্পেশাল ফোর্সের সদস্যরা ইথিওপিয়া-ইরিত্রিয়ান সীমান্তে হুমেরা শহরের কাছে টেকেজ নদীর সেতুর উপর পাহারায় দাঁড়িয়ে আছেন।১ জুলাই ২০২১।

ইথিওপিয়ার টিগ্রায় অঞ্চলের বিদ্রোহী বাহিনী বুধবার প্রকাশিত এই খবর অস্বীকার করেছে যে তারা আমহারা এলাকায় দুই দিনের মধ্যে কয়েক ডজন বেসামরিক লোককে হত্যা করেছে।

রয়টার্স বার্তা সংস্থা বুধবার জানায় যে আঞ্চলিক কর্তৃপক্ষ বলছে যে সেপ্টেম্বরের ১ থেকে ২ তারিখের মধ্যে ১২০ জন বেসামরিক লোককে হত্যা করা হয়েছে।

স্থানীয় কর্মকর্তারা রয়টার্সকে জানিয়েছেন, তারা দাবাত শহর থেকে প্রায় ১০ কিলোমিটার দূরে একটি গ্রামে মৃতদেহ উদ্ধার করেছেন। নিহতদের কৃষক বলে মনে হচ্ছে।

টিগ্রায় পিপলস লিবারেশন ফ্রন্ট বুধবার আরও পরের দিকে এক বিবৃতি প্রকাশ করে যাকে তারা "বানোয়াট অভিযোগ" অভিহিত করে প্রত্যাখ্যান করেছে।

টিপিএলএফ -এর মুখপাত্র গেটাচিউ রেডা বলেন, "সব নৃশংসতার স্বাধীন তদন্তের জন্য আমাদের আহ্বান পুনর্ব্যক্ত করছি এবং অভিযোগের বিরুদ্ধে স্বাধীন ভাবে যাচাই করার জন্য আমাদের নিয়ন্ত্রণাধীন অঞ্চলে সংবাদকর্মীদের প্রবেশ সহজ করার ইচ্ছা ব্যক্ত করছি।"

রয়টার্স উল্লেখ করেছে যে যদি এই হত্যার ঘটনা নিশ্চিত করা হয় তা হ’লে আমহারা অঞ্চলের ভূখণ্ডের নিয়ন্ত্রণ দাবি করার পর এই ঘটনাটি টিগ্রায় বাহিনী কর্তৃক প্রথম গণহত্যার চিহ্ন হিসেবে চিহ্নিত হবে।

২৪ জুন, ইথিওপিয়ার সরকার প্রায় আট মাস টিগ্রায় বাহিনীর সঙ্গে লড়াইয়ের পর তাৎক্ষণিক ও একতরফা ভাবে মানবিক যুদ্ধবিরতি ঘোষণা করে।তবে বৈরীতা অব্যাহত রয়েছে এবং প্রধানমন্ত্রী সম্প্রতি ইথিওপিয়ার সমস্ত নাগরিককে যুদ্ধে যোগ দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন।

সরকারী বাহিনী প্রত্যাহারের পর টিগ্রায় বাহিনী আঞ্চলিক রাজধানী মেকেলের নিয়ন্ত্রণ পুনরুদ্ধার করে। যুদ্ধবিরতি ঘোষণার কয়েক সপ্তাহের মধ্যে পার্শ্ববর্তী আফার এবং আমহারা অঞ্চলে তাদের উপস্থিতি বিস্তৃত করেছে। সেখানে সংঘর্ষ বেড়েছে এবং হাজার হাজার বেসামরিক লোক বাস্তুচ্যুত হয়েছে।

XS
SM
MD
LG