অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

বিজেপিকে ধিক্কার জানাতেই প্রতিবাদ কর্মসূচিতে আজ সারাদিনব্যাপী কালা দিবস পালন করল তৃণমূল কংগ্রেস


আজ কলকাতায় ভারতীয় জনতা পার্টি বিজেপির যুব মোর্চার সমাবেশে মঞ্চে দাঁড়িয়ে বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহর ভাষণে প্রথম থেকেই লক্ষ্য ছিল রাজ্যে তৃণমূল কংগ্রেসের সরকারকে অর্থাৎ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকারকে দূর হটাও এর ডাক।

এদিন কলকাতার মেয়ো রোডে বিজেপির যুব মোর্চার জনসভার মঞ্চে দাঁড়িয়ে বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ তার ভাষণে বলেন বাংলাদেশ, পাকিস্তান, আফগানিস্তান থেকে যে হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান শরণার্থীরা ভারতে এসেছেন, তাঁদের কোনও চিন্তা নেই। শরণার্থীদের নাগরিকত্ব দিয়ে দেবে ভারত সরকার। কলকাতার জনসভা থেকে আজ এমনই আশ্বাস দিলেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ। কিন্তু এনআরসি (নাগরিকপঞ্জি) তৈরি হবেই এবং বাংলাদেশি অনুপ্রবেশকারীদের চিহ্নিত করা হবেই— এমনই ঘোষণা ছিল আজ অমিত শাহের। দেশের নিরাপত্তার স্বার্থে এনআরসি জরুরি বলেও তিনি মন্তব্য করেন। বিজেপির যুব মোর্চার সভায় অমিত শাহের বক্তৃতার নিশানায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং তাঁর সরকার প্রথম থেকেই ছিল। নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বে এ রাজ্য থেকে মমতা সরকারকে উপড়ে ফেলার চ্যালেঞ্জ ঘোষণা করেন অমিত শাহ।

ভাষণে তিনি বললেন---একই সঙ্গে নাগরিক পঞ্জি নিয়েও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিদ্রোহকে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে অমিত শাহ বললেন, হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান শরণার্থীদের এ দেশে নাগরিক করতে বিল আনবে কেন্দ্র, সেই বিল আইনে পরিণত করা আটকাবার ক্ষমতা থাকলে মমতা বন্দোপাধ্যায় আটকান।

এ দিকে আজ গোটা রাজ্যেই কালা দিবস পালন করল তৃণমূল কংগ্রেস। কালো পতাকা নিয়ে, কালো ব্যাজ পরে পথে নামলেন তৃণমূল কর্মীরা। অসমে জাতীয় নাগরিক পঞ্জি প্রকাশ অর্থাৎ এনআরসি-র প্রতিবাদে বিভিন্ন এলাকায় পথসভা করে বিজেপি-কে তাঁরা ধিক্কার জানাতেই তাদের এই প্রতিবাদ কর্মসূচি আজ সারাদিনব্যাপী পালন করল তৃণমূল কংগ্রেস ।

please wait

No media source currently available

0:00 0:01:03 0:00

XS
SM
MD
LG