অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

ট্রাম্পের সফরে ইউরোপে নেতিবাচক প্রতিক্রিয়া


NATO Secretary General Jens Stoltenberg listens as President Donald Trump speaks during a ceremony to unveil artifacts from the World Trade Center and Berlin Wall for the new NATO headquarters in Brussels, May 25, 2017.

হোয়াইট হাউসের মুখপাত্র শন স্পাইসার শনিবার রাতে ঘোষণা করেছেন যে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট হিসেবে ডনাল্ড ট্রাম্পের প্রথম বিদেশ সফর সফল হয়েছে। আমেরিকান নেতা যখন ওয়াশিংটনে ফিরে আসছিলেন তখন, এক টুইট বার্তায় Spicer লেখেন “ফলপ্রসূ ৯ দিন পর” তিনি ফিরে আসেন।

এর কয়েক ঘন্টা আগে সিসিলিতে অবস্থানরত আমেরিকান সেনাদের প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প বলেন মিত্র দেশগুলোর সঙ্গে তিনি সম্পর্ক জোরদার করেছেন।

অবশ্য ইউরোপীয় নেতারা এবং ওই মহাদেশের বার্তা মাধ্যমের অধিকাংশ, প্রেসিডেন্টের সফরকে সে ভাবে দেখছে না।

ট্রাম্পের সফরে ইউরোপীয় প্রতিক্রিয়া, বিশেষ ভাবে দুটি রাজধানী বার্লিন এবং প্যারিসে, হোয়াইট হাউস যে ভাবে সফরকে উল্লেখ করছে তার চাইতে খুবই ভিন্ন ভাবে তা দেখা হচ্ছে। তারা সাফল্য শব্দটা ব্যবহার করছে না।

ইউরোপীয় কর্মকর্তারা বলছেন মিত্রদেশগুলো ট্রাম্পের সফরের আগের তুলনায় এখন আরও বেশী একজোট নয়। তারা এখন মনে করেন ইউরোপকে একাই তাদের পথ দেখতে হবে। ট্রাম্প যখন নির্বাচিত হন তখন তারা সেটাই ধারণা করেছিলেন।

ইউরপিয়ানদের কাছে ওয়াশিংটন এখন আর নির্ভরযোগ্য মিত্র দেশ নয়। ইউরোপীয় বার্তা মাধ্যমে সার্বিক ভাবে সেটাই বলা হয়।

XS
SM
MD
LG