অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে মিশরের সঙ্গে পারস্পরিক সহযোগীতার প্রত্যয় ব্যক্ত করলেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প


যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্প, বিশ্বের সর্ববৃহৎ আরব রাষ্ট্র মিশরের সঙ্গে বহু বছর যাবত যে হিমশীতল সম্পর্কটা চলে আসছিল সেটাই পাল্টিয়ে দিলেন গতকাল সোমবার। মিশরের প্রেসিডেন্ট আব্দেল ফাত্তাহ এস সিসিকে তিনি উষ্ম আন্তরিকতায় স্বাগত জানালেন হোয়াইট হাউসে। এবং ইসলামপন্থী উগ্র সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে মিশরের সঙ্গে পারস্পরিক সহযোগীতার প্রত্যয় ব্যক্ত করলেন তিনি।

সাবেক প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা মিশরের প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট হোসনী মোবারককে হোয়াইট হাউসে অভ্যর্থনা জানিয়েছিলেন সেই দুই হাজার নয় সালে। মোবারককে ক্ষমতাচ্যুত করে কয়েক বছরের সৃষ্ট রাজনৈতিক ডামাডোলের মধ্যে দিয়ে সাবেক সেনাধিনায়ক- স্বৈরশাসক জেনারেল সিসিকে ক্ষমতায় অধিষ্ঠিত করেছিল যে পরিস্থিতি তারপর এই প্রথম মিশরীয় কোন নেতা হোয়াইট হাউসে এলেন।

দু’নেতা পরস্পর মুখোমুখি বসেন ওভাল অফিসে আলোচনা অনুষ্ঠানে। ট্রাম্প বলেন, "আমরা একদম মিশরের পিছনে রয়েছি, মিশরের জনগনের সমর্থনে রয়েছি আমরা"।

সিসি প্রতুত্তরে ট্রাম্পের দৃপ্ত অবস্থানের প্রতি স্তুতি জানিয়ে বলেন, ইসলামপন্থী উগ্র সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে আমরা আপনার সঙ্গে রয়েছি। দু’হাজার তেরো সালে ক্ষমতারোহনের পর থেকেই সিসি তাঁর এ অবস্থানের কথাটা জোরের সঙ্গেই বলে এসেছেন।

তবে সন্ত্রাস প্রতিরোধের স্বরূপটা ঠিক কেমন হবে হোয়াইট হাউসের মূখপাত্র শন স্পইসার পরে সাংবাদিক সকাশে তার কোন ব্যাখ্যা দেননি।

XS
SM
MD
LG