অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

চীনের বিরুদ্ধে বানিজ্য্য বিষয়ক স্মারক লিপি সই করেছেন ট্রাম্প


যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্প আজ একটি স্মারক লিপিতে সই করেছেন যার লক্ষ্য হচ্ছে , ঐ স্মারক লিপির কথায় চীনের অর্থনৈতিক আগ্রাসন। এই পদক্ষেপ বিশ্বের দুটি বৃহত্তম অর্থনীতির মধ্যে পুরোদমে বানিজ্যিক লড়াইয়ের রূপ নিতে পারে।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্প আজ একটি স্মারক লিপিতে সই করেছেন যার লক্ষ্য হচ্ছে , ঐ স্মারক লিপির কথায় চীনের অর্থনৈতিক আগ্রাসন। এই পদক্ষেপ বিশ্বের দুটি বৃহত্তম অর্থনীতির মধ্যে পুরোদমে বানিজ্যিক লড়াইয়ের রূপ নিতে পারে।

বানিজ্য বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্রের এই তৎপরতার অংশত কারণ হচ্ছে, চীনা কোম্পানিদের দ্বারা আমেরিকান প্রযুক্তি চুরি এবং অনৈতিক ভাবে হস্তান্তর।

ঐ বৈঠকের আগে চীনের বানিজ্য মন্ত্রক বলেছে যে চীন বানিজ্যের বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্রের এক তরফা ব্যবস্থা গ্রহণের বিরোধী এবং আশা করছে দুটি দেশ সংলাপের মধ্য দিয়ে পারস্পরিক স্বার্থে একটি নিস্পত্তিতে পৌঁছুতে পারে।

গতকাল যুক্তরাষ্ট্রের কর্মকর্তারা তাদের এক মাস ব্যাপী তদন্তের কথা সংবাদদাতাদের জানান। এই তদন্তটি হয় চীনের বানিজ্যের বিষয়ে ১৯৭৪ সালের বানিজ্য আইনের ৩০১ নম্বর ধারা অনুযায়ী । দীর্ঘ দিন ধরেই মনে করা হচ্ছে যে চীন , ২০০১ সালে বিশ্ব বানিজ্য সংস্থায় যোগ দেওয়া সত্বেও দীর্ঘ দিন ধরে বিশ্ব বানিজ্যের নিয়ম-নীতিগুলো লংঘন করে চলেছে। যুক্তরাষ্ট্রের বানিজ্যিক প্রতিনিধি সংবাদদাতাদের পাটভূমি ব্যাখ্যা করতে গিয়ে বলেছেন যে বিশ্ব্ বানিজ্য সংস্থার আওতায় দায় দায়িত্ব পালন করতে চীন বেশ কিছু সুনির্দিষ্ট বিষয়ে ব্যর্থ হয়েছে। এ সব কারণে এ ব্যাপারে স্পষ্ট আভাস পাওয়া যাচ্ছে যে ট্রাম্পের ১৪ই অগাস্টের স্মারকলিপি অনুযায়ী প্রশাসন ৩০১ নম্বর বানিজ্যিক ধারা ব্যবহার করতে পারে।

.

XS
SM
MD
LG