অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

জাতিসংঘ বলছে মিয়ান্মারে শান্তিপূর্ণ প্রতিবাদকারীদের হত্যা বাড়ছে


মিয়ান্মারে সামরিক হুন্তা প্রতিবাদকারীদের উপর নৃশংসতা বৃদ্ধি করায় যে পরিমাণে লোক মারা যাচ্ছে তাতে মানবাধিকার কর্মকর্তারা আশংকা প্রকাশ করছেন। গত সপ্তাটি ছিল বিশেষত সব চেয়ে মারাত্মক। জাতিসংঘের মানবাধিকার দপ্তর বলছে সোমবার ১১ জন নিহত হয় এবং সপ্তাহান্তে নিরাপত্তা বাহিনী ৫৭ জনকে হত্যা করেছে । তারা শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভকারীদের উপর তাজা অস্ত্র ব্যবহার করে। ১লা ফেব্রুয়ারি, যখন সামরিক বাহিনী আওন সান সু চি’র গণতান্ত্রিক ভাবে নির্বাচিত সরকারকে ক্ষমতাচ্যূত করে তখন থেকে এ পর্যন্ত ১৪৯ জনকে হত্যা করা হয়েছে বলে জাতিসংঘের এই সংস্থাটি নিশ্চিত করেছে

মিয়ান্মারে সামরিক হুন্তা প্রতিবাদকারীদের উপর নৃশংসতা বৃদ্ধি করায় যে পরিমাণে লোক মারা যাচ্ছে তাতে মানবাধিকার কর্মকর্তারা আশংকা প্রকাশ করছেন। গত সপ্তাটি ছিল বিশেষত সব চেয়ে মারাত্মক। জাতিসংঘের মানবাধিকার দপ্তর বলছে সোমবার ১১ জন নিহত হয় এবং সপ্তাহান্তে নিরাপত্তা বাহিনী ৫৭ জনকে হত্যা করেছে । তারা শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভকারীদের উপর তাজা অস্ত্র ব্যবহার করে। ১লা ফেব্রুয়ারি, যখন সামরিক বাহিনী আওন সান সু চি’র গণতান্ত্রিক ভাবে নির্বাচিত সরকারকে ক্ষমতাচ্যূত করে তখন থেকে এ পর্যন্ত ১৪৯ জনকে হত্যা করা হয়েছে বলে জাতিসংঘের এই সংস্থাটি নিশ্চিত করেছে। তবে তারা বলছে তারা মনে করে নিহতদের সংখ্যা আরও বেশি হবে।

জাতিসংঘের মানবাধিকার মুখপাত্রী রাভিনা শামদাসানি বলছেন তাঁর দপ্তর ক্রমাগত এ ধরণের খবর পাচ্ছে যে লোকজনকে ইচ্ছেমত গ্রেপ্তার করা হচ্ছে, জোরপূর্বক অপহরণ করা হচ্ছে এবং আটক অবস্থায় নির্মম ভাবে প্রহার ও নির্যাতন করা হচ্ছে। তিনি বলেন এ পর্যন্ত জানা গেছে ২০৮৪ জনেরও বেশি লোককে ইচ্ছেমত আটক রাখা হয়েছে। তিনি বলেন, “কমপক্ষে ৩৭ জন সাংবাদিককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে, যার মধ্যে উনিশ জনকেই কোন কারণ ছাড়া আটক রাখা হয়েছে “। সাম্প্রতিক সপ্তাগুলোতে বন্দি অবস্থায় অন্তত ৫ জন মারা গেছে এবং দুজনের শরীরে নির্যাতনের চিহ্ন দেখা গেছে।

XS
SM
MD
LG