অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

মহাত্মা গান্ধীর মূর্তিতে কলঙ্ক লেপনের তীব্র নিন্দা করেছে যুক্তরাষ্ট্র সরকার


যুক্তরাষ্ট্রের রাজধানী ওয়াশিংটন ডিসিতে গত সপ্তাহে মহাত্মা গান্ধীর মূর্তিতে কলঙ্ক লেপনের তীব্র নিন্দা করেছে যুক্তরাষ্ট্র সরকার। মঙ্গলবার হোয়াইট হাউসের প্রেস সেক্রেটারি ক্যালেই ম্যাকইনানি একটি প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলেন, যুক্তরাষ্ট্র সরকার যে কোনও রকম মূর্তি বা স্মৃতিসৌধের ক্ষতিসাধনের নিন্দা করে। এখানে বিশেষ করে মহাত্মা গান্ধীর মতো একজন মানুষের মূর্তির ক্ষতি করা হয়েছে, যিনি আজীবন ন্যায়ের পথে চলেছেন, স্বাধীনতার জন্য সংগ্রাম করেছেন এবং সব সময় মানুষে মানুষে বিভেদ ও কলহ দূর করতে ডাক দিয়েছেন। একটি গণতান্ত্রিক দেশ হিসেবে যুক্তরাষ্ট্র যা কিছুর মর্যাদা দেয় এবং অনুসরণ করে, সেই শান্তি, ন্যায়বিচার ও স্বাধীনতা ছিল মহাত্মা গান্ধীর বাণী। তাই এই ঘটনা আরও নিন্দাজনক।

সরাসরি লিংক


উল্লেখ্য, ভারতে নতুন কৃষি আইনের প্রতিবাদে ও আন্দোলনকারী কৃষকদের সমর্থনে ওয়াশিংটনে খালিস্তানিরা বিক্ষোভ দেখানোর সময় গান্ধী মূর্তির ক্ষতি করেন। এই নিয়ে ছ'মাসের মধ্যে দু'বার ওই একই গান্ধী মূর্তির ক্ষতি করা হয়েছে। গত জুন মাসে মিনিয়াপলিসে পুলিশি হেফাজতে কৃষ্ণাঙ্গ জর্জ ফ্লয়েডের মৃত্যুর প্রতিবাদে একদল লোক গান্ধী মূর্তিতে কালি মাখিয়ে দিয়ে যান। অথচ, কৃষ্ণাঙ্গ নেতা মার্টিন লুথার কিং জুনিয়র বারবার বলেছেন, মহাত্মা গান্ধীই ছিলেন তাঁর শান্তিপূর্ণ আন্দোলনের প্রেরণা। ২০০০ সালের ১৬ই সেপ্টেম্বর যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট বিল ক্লিনটনের উপস্থিতিতে ভারতের প্রধানমন্ত্রী অটলবিহারী বাজপেয়ী ওয়াশিংটন ডিসিতে ভারতীয় দূতাবাসের সামনে ওই গান্ধী মূর্তির উদ্বোধন করেন।

XS
SM
MD
LG