অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

বিশ্বে করোনাভাইরাস পরিস্থিতি: লকডাউন শিথিল করার প্রবণতা


জার্মানিতে নিষেধাজ্ঞা শিথিল করা হয়েছে তবে এখনো সেখানে সংক্রমণের ঘটনা ঘটছে। মঙ্গলবার ৯৩৩ জন নতুন করে কভিড ১৯ এ সংক্রমিত হয়েছেন। জার্মান চ্যান্সেলর আঙ্গেলা মার্কেল বলেছেন, যে সব অঞ্চলে প্রতি এক লক্ষ বাসিন্দার মধ্যে ৫০ জনের বেশি এই রোগে সংক্রমিত হবেন সেখানে লকডাউন আবার বলবৎ করা হবে। গত সপ্তায় সেখানে তিনটি অঞ্চলে এই সংখ্যা ছাড়িয়ে যাওয়ায় নতুন করে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়। মার্কেল জনসাধারণকে শারীরিক দূরত্ব বজায় রাখা, মাস্ক পরা এবং দায়িত্বশীল আচরণ করার আহ্বান জানিয়েছেন। জার্মান নেত্রী অর্থনৈতিক কার্যক্রম আবার শুরু করার জন্য চাপের মুখে রয়েছেন।

লকডাউনের পরিসমাপ্তি ঘটানোর জন্য যুক্তরাষ্ট্রেও একই ধরণের চাপ রয়েছে। জন্স হপক্ন্সি বিশ্ববিদ্যালয়ের হিসেব অনুযায়ী, এখান কভিডে মোট সনাক্ত ব্যক্তির সংখ্যা ১৩ লক্ষ ৬০ হাজার ছাড়িয়ে গেছে, প্রাণানি ঘটেছে ৮২ হাজারেরও বেশি লোকের, যা কীনা বিশ্বে সর্বোচ্চ। এদিকে ট্রাম্প প্রশাসন নভেম্বরের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনকে সামনে রেখে দ্রুত ব্যবসা বানিজ্য খুলে দিতে এবং অর্থনীতি পুণঃনির্মাণে আগ্রহী।

ওদিকে করোনাভাইরাস সংক্রমণে রাশিয়া রাতারাতি যুক্তরাষ্টের পরেই দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে এখন। সরকারি তাস বার্তা সংস্থা অনুযায়ী কভিড ১৯ এ মোট সনাক্ত রোগীর সংখ্যা ২ লক্ষ ৩২ হাজার ২৪৩ জন এবং গোটা দেশে প্রাণহানির সংখ্যা ২১১৬ জন। ক্রেমলিনের মুখপাত্র দ্যমিত্রি পেসকভ গতকাল ঘোষণা করেন যে তিনি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। রুশ প্রধানমন্ত্রী মিশাইল মিশুস্তিনকেও দুই সপ্তাহ আগে তাঁর দায়িত্ব থেকে সরে দাঁড়াতে হয় যখন তাঁর দেহেও কভিড ১৯ সনাক্ত করা হয়। প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন তাঁর সব যোগাযোগ ভিডিওর মাধ্যমে করছেন। তিনি মস্কোর অদূরে তাঁর অবকাশ যাপন স্থলে রয়েছেন।

বিশ্বের বেশ কিছু দেশে করোনাভাইরাস নিয়ন্ত্রণের জন্যে নেয়া পদক্ষেপগুলো শিথিল করা শুরু হয়েছে যদিও নতুন করে সংক্রমণের ঘটনা ঘটছে এবং আরেকবার এই মহামারি দেখা দিতে পারে বলে আশংকা রয়েছে।

ইটালি, লেবানন এবং ক্রোয়েশিয়ায় বিধিনিষেধ শিথিল করার পর নতুন সংক্রমণের হার বেড়ে গেছে। জন্স হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের সংখ্যাতাত্ত্বিক হিসেব অনুযায়ী এখন গোটা বিশ্বে করোনাভাইরাসে সনাক্ত রোগীর সংখ্যা হচ্ছে ৪২ লক্ষ আর বিশ্বে মোট মৃতের সংখ্যা ২ লক্ষ ৯১ হাজার ছাড়িয়ে গেছে।

XS
SM
MD
LG