অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

বিমল গুরুংয়ের ডাকা অনির্দিষ্টকালের বনধের ১০৩-তম দিনে স্বাভাবিক হতে শুরু করল দার্জিলিং


বিমল গুরুংয়ের ডাকা অনির্দিষ্টকালের বনধের ১০৩-তম দিনে স্বাভাবিক হতে শুরু করল দার্জিলিং। টানা অচলাবস্থার বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়ে পাহাড়ের ১৯টি ব্যবসায়ী সংগঠন শনিবারই সিদ্ধান্ত নেয়, রবিবার সকাল ৯টা থেকে খুলে যাবে সব দোকান-বাজার। সাহস করে অনেক ব্যবসায়ীই রবিবার দোকান খুলে ফেললেন। কিন্তু গুরুংপন্থীরাও সহজে ছাড়বার নয়। একাধিক জায়গায় গাড়িতে ভাঙচুর হল, আগুন জ্বলল। গোপন আস্তানা থেকে গুরুং হুমকি দেন, ধর্মঘট তুললে খুন হয়ে যাবেন দোকানীরা। ফিরিয়ে আনা হবে মধ্য-৮০র সশস্ত্র আন্দেলন। কি হবে, এখনই বলা শক্ত। পাহাড়ের অধিকাংশ মানুষ গোর্খাল্যান্ড চাইলেও এ ভাবে রোজগারহীন হয়ে ধর্মঘট চালানোরও পক্ষপাতী নন। এ বার হয়তো পর্যটকেরা পাহাড়ে আসবেন, খুলে যাবে স্কুল-কলেজ। এই দিনটি তাই গুরুত্বপূর্ণ।

XS
SM
MD
LG