অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

আরিয়ানকে জেলে থাকতে হবে আরও ১৪ দিন, জামিনের আবেদন নাকচ


আরিয়ান খান
আরিয়ান খান

জামিন হলো না আরিয়ান খানের। আরও কিছুদিন জেলে থাকতে হবে শাহরুখ খানের ছেলে আরিয়ান খানকে। মুম্বাইয়ের আদালত বৃহস্পতিবার আরিয়ানের ১৪ দিনের জেল হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছে।

মাদক কাণ্ডে নাম জড়িয়েছে বলিউড বাদশা শাহরুখ খানের বড় ছেলে আরিয়ান খানের। রবিবার তাঁকে গ্রেপ্তার করেছে নারকোটিকস কন্ট্রোল ব্যুরো। মুম্বই থেকে গোয়া যাওয়ার 'কর্ডেলিয়া' নামের এক প্রমোদতরী থেকে আটক করা হয় আরিয়ানকে। তাঁর সঙ্গে গ্রেপ্তার হয়েছেন আরবাজ মারচেন্ট, মুনমুন ধামেচা-সহ আরও কয়েকজন। জেরার মুখে মাদক নেওয়ার কথা স্বীকারও করেছেন আরিয়ান। সোমবার তাঁকে আদালতে তোলা হলে বিচারপতি বৃহস্পতিবার পর্যন্ত এনসিবি হেফাজতের নির্দেশ দেন।

এরপর বৃহস্পতিবার তাঁদের আবার আদালতে তোলা হয়। আরিয়ানের আইনজীবী তাঁর জামিনের আবেদন করেন। কিন্তু আদালত তাতে কর্ণপাত করেনি। আরও ১৪ দিনের হেফাজতের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে আরিয়ান ও তাঁর সঙ্গীদের। জেলে থাকতে হবে তাঁদের।

তবে বৃহস্পতিবার রাতে এনসিবি হেফাজতেই থাকছেন আরিয়ানরা। বৃহস্পতিবার তাঁদের জেলে যেতে হচ্ছে না। মুম্বাইয়ের এসপ্ল্যানেড কোর্টের বদলে এবার এই মামলার শুনানি হবে এনডিপিএস আদালতে।

এরই মধ্যে নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরো অর্থাৎ এনসিবি-র মুখ্য আধিকারিক এসএন প্রধান বলেছেন, "কে কোন শিল্পপতির ছেলে নাকি তারকার ছেলে, সেটা খুঁজে বের করাটা এনসিবি-র কাজ নয়। আমাদের কাজ হল, প্রতিটা অপরাধীর বিরুদ্ধে পদক্ষেপ করা এবং সেটা সকলের জন্যই একইরকম ভাবে করা। আমরা ভবিষ্যতেও এটাই করব। এই মাদকচক্রে যেই জড়িয়ে থাকুক না কেন, জানা গেলে তার কোনও ব্যাকগ্রাউন্ড বিচার না করেই শাস্তি হবে।"

XS
SM
MD
LG