অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

১০০ কোটি মানুষকে কোভিড টিকা দেয়ার মাইলফলক স্পর্শ করল ভারত


ভারতের মুম্বাইয়ের রাজাওয়াদী হাসপাতালে স্বাস্থ্যকর্মীরা ১০০ কোটি মানুষকে কোভিড-১৯ টিকা দেয়ার  মাইলফলক স্পর্শ করার জন্য আঙুল দিয়ে বিজয়ের চিহ্ন দেখিয়ে উদযাপন করছেন। ২১ অক্টোবর ২০২১।(ছবি-এপি/রাজনিশ কাঁকড়ে)

ভারত বৃহস্পতিবার ১০০ কোটি মানুষকে কোভিড -১৯ টিকা দেয়ার মাইলফলক স্পর্শ করেছে। এই টিকা কার্যক্রম বছরের শুরুতে বেশ ধীর গতিতে শুরু হলেও পরে তা বেড়ে যায়।

চীনের পর ভারত দ্বিতীয় দেশ যারা তাদের টিকাদান কর্মসূচিতে ১০০ কোটিতে পৌঁছেছে।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বৃহস্পতিবার এক টুইটার পোস্টে লেখেন, “ভারত ইতিহাস রচনা করেছে।আমরা ভারতীয় বিজ্ঞান, উদ্যোগ এবং (১১০০ কোটি) ভারতীয়দের সম্মিলিত চেতনার বিজয় প্রত্যক্ষ করছি।আমাদের ডাক্তার, নার্স এবং যারা এই কৃতিত্ব অর্জনের জন্য কাজ করেছেন তাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি।" এই উপলক্ষে তিনি একটি সরকারি হাসপাতালে যান।

তবে জনসংখ্যার মাত্র ৩০ শতাংশ পূর্ণ টিকা গ্রহণ করেছে। যারা একটি ডোজ পেয়েছে, ভারতকে এখনও তাদের টিকা দিতে হবে এবং সেই সংখ্যাটি কয়েক কোটির ঘরে।

সম্পূর্ণ এবং আংশিকভাবে টিকা গ্রহণ করা ব্যক্তিদের মধ্যে বিস্তৃত ব্যবধান নিয়ে উদ্বেগের মধ্যে, কর্মকর্তারা বলছেন যে তারা বছরের শেষ নাগাদ ৯৪ কোটি ৪০ লক্ষ প্রাপ্তবয়স্ক জনসংখ্যাকে টিকা দেওয়ার লক্ষ্য নির্ধারণ করেছে।

তবে যে দেশে ৩ কোটি ৪০ লক্ষ মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছে সে দেশে ১০০ কোটি মাইলফলক অর্জন উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি- বিশ্বের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ।

পাবলিক-প্রাইভেট পার্টনারশিপ অফ ইন্ডিয়ার পাবলিক হেলথ ফাউন্ডেশনের সভাপতি কে শ্রীনাথ রেড্ডি বলেন, "আমি মনে করি এটি মনোবল বৃদ্ধি করার মত।কারণ এটি আমাদের এক ধরণের আত্মবিশ্বাস দেয় যে আমরা জনগণের কোন রকম প্রতিরোধ ছাড়া এগিয়ে যেতে পারি।যুক্তিসঙ্গতভাবে দক্ষ যন্ত্রপাতি ব্যবহারের মাধ্যমে ভারতের বিভিন্ন অঞ্চলে টিকা কর্মসূচি নিয়ে এগিয়ে যেতে পারি।"

এই বছরের শুরুর দিকে ডেলটা প্রকরণের কারণে মারাত্মক দ্বিতীয় ঢেউ এর সময় যখন হাজার হাজার মানুষ অসুস্থ হয়ে পড়েছিল বা মারা গিয়েছিল তখন ভারতে ভ্যাকসিনের জন্য হাহাকার চলছিল। ভারত বিশ্বের সবচেয়ে বড় ভ্যাকসিন বিতরণকারী হলেও পর্যাপ্ত সরবরাহ নিশ্চিত করতে ব্যর্থ হওয়ায় সরকার সমালোচিত হয়েছিল।

কিন্তু সাম্প্রতিক মাসগুলিতে কর্তৃপক্ষ টিকা কর্মসূচিকে জোরদার করেছে এবং সরকার কোম্পানিগুলিকে উৎপাদন বাড়াতে সাহায্য করায় ভ্যাকসিন সরবরাহ বেড়েছে।

যারা এখনো টিকা গ্রহণ করেননি তাদের টিকা নেয়ার জন্য কর্মকর্তারা অনুরোধ জানাচ্ছেন। প্রায় ৭০ কোটি ভারতীয় এখনও একটি টিকাও গ্রহণ করেননি।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন টিকা গ্রহণে যে দ্বিধা সৃষ্টি হয়েছে তা কোন বড় রকমের বাধা সৃষ্টি করেনি।

রেড্ডি ভিওএকে বলেন,"এমন কিছু মানুষ আছেন যারা মনে করেন যে তাদের টিকার প্রয়োজন নেই কারণ তাদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা রয়েছে। কিন্তু ভ্যাকসিন-বিরোধী কোন ভয় নেই যে এটি একটি খুব বিপজ্জনক ভ্যাকসিন যা তাদের ক্ষতি করতে যাচ্ছে।"

XS
SM
MD
LG