অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

খালেদা জিয়ার মুক্তির মেয়াদ বাড়ানোর সুপারিশ


খালেদা জিয়ার মুক্তির মেয়াদ বাড়ানোর সুপারিশ

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার সাজার কার্যকারিতা আরও ছয় মাস স্থগিতের পক্ষে মত দিয়েছে আইন মন্ত্রণালয়। তবে পরিবারের তরফে বিদেশে পাঠানোর আর্জি সম্পর্কে আইন মন্ত্রণালয় কোনো মত দেয়নি।

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার সাজার কার্যকারিতা আরও ছয় মাস স্থগিতের পক্ষে মত দিয়েছে আইন মন্ত্রণালয়। তবে পরিবারের তরফে বিদেশে পাঠানোর আর্জি সম্পর্কে আইন মন্ত্রণালয় কোনো মত দেয়নি।

আইনমন্ত্রী আনিসুল হক সোমবার দুপুরে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে বলেন, দেশের ভেতরে থেকে তিনি যদি বিশেষায়িত কোনো হাসপাতালে চিকিৎসা নেন তাতে সরকারের আপত্তি নেই। আইন মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, দুর্নীতির দায়ে দণ্ডিত খালেদা জিয়ার সাজার কার্যকারিতা আগের শর্তে আরও ছয় মাস বাড়ানোর সুপারিশ করা হয়েছে।

গত বছর ২৫শে মার্চ ২৫ মাস কারাভোগের পর করোনাভাইরাসের কারণে সাজা মওকুফ করে ছয় মাসের জন্য খালেদা জিয়াকে মুক্তি দেয়া হয়। গত বছরের সেপ্টেম্বরে তার মুক্তির মেয়াদ শেষ হয়ে যাওয়ার পর আরও ছয় মাস বাড়ানো হয়। ৭৫ বছর বয়সী সাবেক এই প্রধানমন্ত্রী গুলশানে একটি ভাড়া করা বাড়িতে রয়েছেন। মুক্তির পর খালেদা জিয়া কোনো রাজনৈতিক কর্মসূচিতে অংশ নেননি। পরিবারের সদস্য ছাড়া দলীয় নেতাকর্মীদের সঙ্গে দেখাও করেননি।

খালেদা জিয়ার চিকিৎসার জন্য চার সদস্যের একটি মেডিকেল টিম রয়েছে। টিমের সদস্যরা বলছেন, বর্তমানে তিনি আরথ্রাইটিস, ডায়াবেটিস ও চোখের সমস্যাসহ নানাবিধ রোগে ভুগছেন। তার পরিবার ক্রমাগতভাবে উন্নত চিকিৎসার জন্য বিদেশে পাঠানোর দাবি জানিয়ে আসছে। জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় বেগম জিয়াকে প্রথমে পাঁচ বছরের দণ্ড দেয়া হয়। এরপর তার সাজা বাড়িয়ে ১০ বছরের দণ্ড দেয় হাইকোর্ট। ঢাকা থেকে মতিউর রহমান চৌধুরী

খালেদা জিয়ার মুক্তির মেয়াদ বাড়ানোর সুপারিশ
please wait

No media source currently available

0:00 0:01:14 0:00
সরাসরি লিংক



XS
SM
MD
LG